ডাচ-বাংলা ব্যাংকের ২৫ শতাংশ লভ্যাংশ অনুমোদন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২:৩৪ পিএম, ১০ জুলাই ২০২০

২০১৯ সালের সমাপ্ত বছরের জন্য পরিচালনা পর্ষদের ঘোষণা করা ২৫ শতাংশ লভ্যাংশ (১৫ শতাংশ নগদ এবং ১০ শতাংশ বোনাস শেয়ার) অনুমোদন করেছেন ডাচ-বাংলা ব্যাংকের শেয়ারহোল্ডাররা।

কোম্পানিটির ২৪তম বার্ষিক সাধারণ সভায় (এজিএম) এ অনুমোদন দেয়া হয়। ডাচ-বাংলা ব্যাংকের চেয়ারম্যান সায়েম আহমেদের সভাপতিত্বে ভার্চুয়াল প্লাটফর্মে এই এজিএম অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় ব্যাংকের পরিচালক হিসেবে সায়েম আহমেদ, আবেদুর রশীদ খান এবং ট্যাং ইয়েন হা আদার পুনঃনিয়োগ অনুমোদন করা হয়। সেই সঙ্গে স্বতন্ত্র পরিচালক হিসেবে ইকরামুল হক, মো. সেলিমের নিয়োগ অনুমোদন করা হয়।

সভায় ২০২০ সালের জন্য কোম্পানির নিরীক্ষক হিসেবে মেসার্স হোদা ভাসি চৌধুরী এন্ড কোং, চাটার্ড একাউন্ট্যান্টস এবং করপোরেট গভর্নেন্স নিরীক্ষক হিসেবে মেসার্স এ. কাসেম এন্ড কোং-এর নিয়োগ অনুমোদন করা হয়।

ডাচ-বাংলা ব্যাংক থেকে জানানো হয়েছে, ২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ব্যাংকের মোট সম্পদের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৩৯ হাজার ৩৬ কোটি টাকা, যা আগের বছরে ছিল ৩৪ হাজার ৬৪৬ কোটি টাকা। অর্থাৎ সম্পদের পরিমাণ বেড়েছে ৪ হাজার ৩৮৯ কোটি টাকা বা ১২ দশমিক ৭ শতাংশ।

২০১৯ সালে ব্যাংকটির দেয়া ঋণের পরিমাণ আগের বছরের তুলনায় ১০ দশমিক ৭ শতাংশ বেড়ে ২৫ হাজার ৬২৪ কোটি টাকায় দাঁড়ায়, যা আগের বছরে ছিল ২৩ হাজার ১৫৫ কোটি টাকা।

২০১৯ সালে ব্যাংকের ডিপোজিট ৩ হাজার ৯৬৯ কোটি টাকা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩০ হাজার ২১৬ কোটি টাকা, যা আগের বছর ছিল ২৬ হাজার ২৪৭ কোটি টাকা। অর্থাৎ ডিপোজিটের প্রবৃদ্ধি হয়েছে ১৫ দশমিক ১ শতাংশ।

ব্যাংকটি থেকে আরও জানানো হয়েছে, ২০১৯ সালে কর পূর্ববর্তী নীট মুনাফা হয় ৭৪৪ কোটি টাকা, যা আগের বছরে ছিল ৬৭৬ কোটি টাকা। আর কর পরবর্তী নীট মুনাফা দাঁড়িয়েছে ৪৩৪ কোটি টাকা, যা আগের বছরে ছিল ৪২০ কোটি টাকা।

শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ৮ টাকা ৭০ পয়সা, যা আগের বছরে ছিল ৮ টাকা ৪০ পয়সা। ব্যাসেল-৩ অনুযায়ী ২০১৯ সালের শেষে ব্যাংকের মূলধন ও ঝুঁকিভর সম্পদের অনুপাত দাঁড়িয়েছে ১৫.৫ শতাংশ, যা বাংলাদেশ ব্যাংকের নিয়ম অনুযায়ী সর্বনিম্ন ১২.৫০ শতাংশ থাকা বাঞ্ছনীয়।

এমএএস/এনএফ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]