দাম কমেছে আট নিত্যপণ্যের

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২:১৩ পিএম, ১৩ জুলাই ২০২০

গত এক সপ্তাহে নিত্যপ্রয়োজনীয় আট পণ্যের দাম কমেছে। এর মধ্যে রয়েছে তেল, পেঁয়াজ, রসুন, পোল্ট্রি মুরগি, শুকনা মরিচ, ছোলা, চিনি এবং আদা। সরকারি প্রতিষ্ঠান ট্রেডিং করপোরেশন অব বংলাদেশের (টিসিবি) প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে।

রাজধানীর শাহজাহানপুর, মালিবাগ বাজার, কারওয়ান বাজার, বাদামতলী বাজার, সূত্রাপুর বাজার, শ্যাম বাজার, কচুক্ষেত বাজার, মৌলভী বাজার, মহাখালী বাজার, উত্তরা আজমপুর বাজার, রহমতগঞ্জ বাজার, রামপুরা এবং মীরপুর-১ নম্বর বাজারের পণ্যের দামের তথ্য নিয়ে এই প্রতিবেদন তৈরি করেছে টিসিবি।

গত এক সপ্তাহে সবথেকে বেশি দাম কমেছে দেশি রসুনের। টিসিবির তথ্য অনুযায়ী, এক সপ্তাহে দেশি রসুনের দাম কমেছে ১০ শতাংশ। বর্তমানে এই রসুনের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৮০ থেকে ১০০ টাকা, যা এক সপ্তাহ আগে ছিল ৯০ থেকে ১১০ টাকা।

দেশি রসুনের পাশাপাশি দাম কমেছে আমদানি করা রসুনের। এক সপ্তাহে আমদানি করা রসুনের দাম ২ দশমিক ৯৪ শতাংশ কমে কেজি ৭৫ থেকে ৯০ টাকা হয়েছে, যা আগে ছিল ৮০ থেকে ৯০ টাকা।

টিসিবির তথ্য অনুযায়ী, গত এক সপ্তাহে দেশি পেঁয়াজের দাম কমেছে ৬ দশমিক ৬৭ শতাংশ। বর্তমানে দেশি পেঁয়াজের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৩০ থেকে ৪০ টাকা, যা এক সপ্তাহ আগে ছিল ৩৫ থেকে ৪০ টাকা।

এক সপ্তাহ আগে ১৪০ থেকে ১৫০ টাকা কেজি বিক্রি হওয়া পোল্ট্রি মুরগির দাম ৬ দশমিক ৯০ শতাংশ কমে ১৩০ থেকে ১৪০ টাকা হয়েছে। ৮৪ থেকে ৮৬ টাকা বিক্রি হওয়া লুজ সয়াবিন তেলের দাম ১ দশমিক ১৮ শতাংশ কমে ৮৩ থেকে ৮৫ টাকা বিক্রি হচ্ছে।

দাম কমার এ তালিকায় রয়েছে দেশি ও আমদানি করা উভয় ধরনের শুকনা মরিচের। সপ্তাহের ব্যবধানে দেশি শুকনা মরিচের দাম ৪ দশমিক শূন্য ৮ শতাংশ কমে কেজি ২১০ থেকে ২৬০ থেকে টাকা বিক্রি হচ্ছে। আমদানি করা শুকনা মরিচের দাম ৬ দশমিক ৯০ শতাংশ কমে কেজি বিক্রি হচ্ছে ২৪০ থেকে ৩০০ টাকা।

দেশি আদার দাম ৪ দশমিক ৩৫ শতাংশ কমে কেজি ১০০ থেকে ১২০ টাকা বিক্রি হচ্ছে। আর আমদানি করা আদার দাম ৩ দশমিক ৫৭ শতাংশ কমে ১২০ থেকে ১৫০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে।

দাম কমার তালিকায় থাকা আর এক পণ্য চিনি। গত এক সপ্তাহে চিনির দাম ১ দশমিক ৬৪ শতাংশ কমে ৫৫ থেকে ৬৫ টাকা বিক্রি হচ্ছে। আর ছোলার দাম ৩ দশমিক ৭০ শতাংশ কমে ৬০ থেকে ৭০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে বলে জানিয়েছে টিসিবি।

এমএএস/এসআর/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]