পেঁয়াজ আমদানিতে শুল্ক প্রত্যাহার করে প্রজ্ঞাপন জারি

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:৪৫ পিএম, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০

পেঁয়াজের বাজার নিয়ন্ত্রণে রাখতে পণ্যটির আমদানিতে আরোপিত পাঁচ শতাংশ শুল্ক প্রত্যাহার করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে সরকার।

মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) অর্থ মন্ত্রণালয়ের অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগ এ প্রজ্ঞাপন জারি করে।

জ্যেষ্ঠ সচিব আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম স্বাক্ষরিক প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সঙ্গে আলোচনা করে জনস্বার্থে পেঁয়াজ আমদানিতে আরোপিত সমুদয় শুল্ক প্রত্যাহার করা হলো। এ প্রজ্ঞাপন ২০২১ সালের ৩১ মার্চ পর্যন্ত কার্যকর থাকবে।

এর আগে গত ৭ সেপ্টেম্বর পেঁয়াজ আমদানির ওপর আরোপিত পাঁচ শতাংশ শুল্ক প্রত্যাহারের অনুরোধ জানিয়ে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডকে (এনবিআর) চিঠি দেয় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। সেখানে বলা হয়, পেঁয়াজ আংশিক আমদানি-নির্ভর একটি নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য। নিকট অতীতে এই পণ্যটির বাজার বেশ কয়েকবার অস্থিতিশীল হয়েছে। ২০১৯-২০ অর্থবছর এই সংকট মারাত্মক আকার ধারণ করেছিল। বর্তমান বাজার পরিস্থিতি পর্যালোচনায় দেখা যায়, পণ্যটির মূল্য সম্প্রতি অনেকটা বৃদ্ধি পেয়েছে। মূলত আমদানি মূল্যবৃদ্ধি পাওয়া এর অন্যতম কারণ। সম্প্রতি ভারত থেকে পেঁয়াজ রফতানি নিষিদ্ধের কারণে বাজারে পেঁয়াজের মূল্য ঊর্ধ্বমুখী।

দেশীয় পেঁয়াজ চাষিদের ন্যায্যমূল্য প্রাপ্তি নিশ্চিতকরণ, পেঁয়াজ চাষে উৎসাহ প্রদান এবং আমদানির ওপর নির্ভরশীলতা হ্রাসের লক্ষ্যে পেঁয়াজ আমদানিতে চলতি (২০২০-২১) অর্থবছর পাঁচ শতাংশ আমদানি শুল্কারোপ করা হয়। তবে বর্তমানে সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় পেঁয়াজের অনুৎপাদনকালীন সময় হিসেবে পরিচিত মার্চ, ২০২১ পর্যন্ত পেঁয়াজের ওপর আরোপিত এ শুল্ক প্রত্যাহার করা হলো।

এমইউএইচ/এসআর/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]