সাত দিনের মাথায় মার্জিন ঋণের বিষয়ে নতুন নির্দেশনা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:২৪ পিএম, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

মার্জিন ঋণের বিষয়ে নতুন নির্দেশনা জারির মাত্র সাত দিনের মাথায় এ-সংক্রান্ত নির্দেশনায় পরিবর্তন এনেছে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)।

গত ২১ সেপ্টেম্বর ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্সের সঙ্গে সামঞ্জস্য করে মার্জিন ঋণের নতুন নির্দেশনা জারি করে বিএসইসি।

সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) সেই নির্দেশনায় পরিবর্তন আনা হয়েছে।

নতুন নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ডিএসই প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স ৪০০১-৭০০০ পয়েন্টের মধ্যে থাকলে ১:০.৫০ হারে এবং ৭০০০-এর ওপরে সূচকের ক্ষেত্রে ১:০.২৫ হারে মার্জিন ঋণ দেয়া যাবে। আর সূচক চার হাজার পয়েন্টের নিচে থাকলে মার্জিন ঋণের অনুপাত হবে ১:০.৭৫। এই নির্দেশনা আগামী বছরের ১ জানুয়ারি থেকে কার্যকর হবে।

এর গত ২১ সেপ্টেম্বর সূচকের সঙ্গে সমন্বয় করে জারি করা বিএসইসির মার্জিন ঋণের নির্দেশনায় বলা হয়, ডিএসইএক্স সূচক চার হাজারের নিচে থাকাকালীন ব্রোকারেজ হাউজ ও মার্চেন্ট ব্যাংক গ্রাহকদের সর্বোচ্চ ১:১ হারে মার্জিন ঋণ দিতে পারবে।

এছাড়া ৪০০১-৫০০০ পর্যন্ত সূচকের ক্ষেত্রে ১:০.৭৫ হারে, ৫০০১-৬০০০ পর্যন্ত সূচকের ক্ষেত্রে ১:০.৫০ হারে এবং ৬০০০-এর ওপরে সূচকের ক্ষেত্রে ১:০.২৫ হারে মার্জিন ঋণ দেয়ার সুযোগ দেয়া হয়। যা আগামী ১ অক্টোবর থেকে কার্যকর হওয়ার কথা ছিল।

বর্তমানে মার্জিন ঋণ প্রদানের সর্বোচ্চ হার ১:০.৫০ এবং সবক্ষেত্রে এই হার একই। অর্থাৎ গ্রাহকের নিজস্ব এক টাকার বিনিয়োগের বিপরীতে সর্বোচ্চ ৫০ পয়সা মার্জিন ঋণ দেয়া যায়।

এমএএস/এসআর/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]