মুনাফা বেড়েছে দুই বীমার, কমেছে একটির

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:৩৫ পিএম, ২৭ অক্টোবর ২০২০

চলতি বছরের তৃতীয় প্রান্তিকে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত দুই বীমা কোম্পানির মুনাফা আগের বছরের তুলনায় বেড়েছে। বিপরীতে এক বীমা কোম্পানির মুনাফা কমেছে।

মুনাফা বাড়া দুই কোম্পানি হলো- নর্দান ইসলামী এবং কর্ণফুলী ইন্স্যুরেন্স। অপরদিকে মুনাফা কমেছে স্ট্যান্ডার্ড ইন্স্যুরেন্সের।

মঙ্গলবার (২৭ অক্টোবর) অনুষ্ঠিত কোম্পানি তিনটির পরিচালনা পর্ষদ সভা শেষে প্রকাশিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

নর্দান ইসলামী ইন্সুরেন্স

চলতি বছরের জুলাই-সেপ্টেম্বর প্রান্তিকে শেয়ার প্রতি মুনাফা হয়েছে ৬১ পয়সা। আগের বছরের একই সময়ে শেয়ার প্রতি মুনাফা হয় ৪৪ পয়সা। সে হিসেবে গত বছরের তুলনায় শেয়ার প্রতি মুনাফা বেড়েছে ১৭ পয়সা।

তৃতীয় প্রান্তিকে মুনাফা বাড়ালেও ৯ মাসের (জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর) হিসাবে কোম্পানিটির মুনাফা আগের বছরের তুলনায় কমেছে। চলতি বছরের জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি মুনাফা হয়েছে ১ টাকা ৪২ পয়সা। যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ১ টাকা ৪৭ পয়সা।

এদিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য আগের বছরের তুলনায় বেড়েছে। চলতি বছরের সেপ্টেম্বর শেষে শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ২০ টাকা ৯১ পয়সা, যা ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর শেষে ছিল ১৯ টাকা ২৪ পয়সা।

অপারেটিং ক্যাশ ফ্লোর তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছরের জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর সময়ে শেয়ার প্রতি অপারিটিং ক্যাশ ফ্লো দাঁড়িয়েছে ৬ টাকা ৯৬ পয়সা, যা ২০১৯ সালের জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর সময়ে ছিল এক টাকা ৪১ পয়সা।

কর্ণফুলী ইন্স্যুরেন্স

চলতি বছরের জুলাই-সেপ্টেম্বর প্রান্তিকে শেয়ার প্রতি মুনাফা হয়েছে ২৫ পয়সা। আগের বছরের একই সময়ে শেয়ার প্রতি মুনাফা হয় ২২ পয়সা। সে হিসেবে গত বছরের তুলনায় শেয়ার প্রতি মুনাফা বেড়েছে ৩ পয়সা।

তৃতীয় প্রান্তিকে মুনাফা বাড়ায় ৯ মাসের (জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর) হিসাবে কোম্পানিটির মুনাফা আগের বছরের তুলনায় বেড়েছে। চলতি বছরের জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি মুনাফা হয়েছে ৮৯ পয়সা। যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ৮২ পয়সা।

এদিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য আগের বছরের তুলনায় বেড়েছে। চলতি বছরের সেপ্টেম্বর শেষে শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৮ টাকা ১১ পয়সা, যা ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর শেষে ছিল ১৭ টাকা ৯৩ পয়সা।

অপারেটিং ক্যাশ ফ্লোর তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছরের জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর সময়ে শেয়ার প্রতি অপারিটিং ক্যাশ ফ্লো দাঁড়িয়েছে ৩ টাকা ১৮ পয়সা, যা ২০১৯ সালের জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর সময়ে ছিল ৩২ পয়সা।

স্ট্যান্ডার্ড ইন্স্যুরেন্স

চলতি বছরের জুলাই-সেপ্টেম্বর প্রান্তিকে শেয়ার প্রতি মুনাফা হয়েছে ৭৮ পয়সা। আগের বছরের একই সময়ে শেয়ার প্রতি মুনাফা হয় ৮২ পয়সা। সে হিসেবে গত বছরের তুলনায় শেয়ার প্রতি মুনাফা বেড়েছে ৪ পয়সা।

তৃতীয় প্রান্তিকে মুনাফা কমায় ৯ মাসের (জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর) হিসাবে কোম্পানিটির মুনাফা আগের বছরের তুলনায় কমেছে। চলতি বছরের জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি মুনাফা হয়েছে ১ টাকা ৮৫ পয়সা। যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ১ টাকা ৯৮ পয়সা।

এদিকে কোম্পানির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য আগের বছরের তুলনায় বেড়েছে। চলতি বছরের সেপ্টেম্বর শেষে শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৮ টাকা ৮৭ পয়সা, যা ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর শেষে ছিল ১৮ টাকা ২ পয়সা।

অপারেটিং ক্যাশ ফ্লোর তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছরের জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর সময়ে শেয়ার প্রতি অপারিটিং ক্যাশ ফ্লো দাঁড়িয়েছে ২ টাকা ৯৫ পয়সা, যা ২০১৯ সালের জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর সময়ে ছিল ১ টাকা ৩৩ পয়সা।

এমএএস/এএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]