বাণিজ্য সহায়ক পরিবেশ তৈরিতে কাজ করবে ঢাকা চেম্বার

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:৫৭ পিএম, ২৫ নভেম্বর ২০২০

বাণিজ্য সহায়ক পরিবেশ তৈরিতে পেশাজীবিদের সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেছে ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই)। এ লক্ষ্যে ডিসিসিআই-এর সঙ্গে একটি সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেছে ইন্সটিটিউট অব কস্ট অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট একাউন্টট্যান্স্ অব বাংলাদেশ (আইসিএমএবি)।

বুধবার (২৫ নভেম্বর) এক বার্তায় এ তথ্য জানিয়েছে ডিসিসিআই।

রাজধানীর নীলক্ষেতে আইসিএমএবি কার্যালয়ে সমঝোতা স্বাক্ষর অনুষ্ঠিত হয়। ডিসিসিআই সভাপতি শামস মাহমুদ এবং আইসিএমএবি-এর সভাপতি জসিম উদ্দিন আকন্দ নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেন।

অনুষ্ঠানে ঢাকা চেম্বারের সভাপতি শামস মাহমুদ বলেন, এ সমঝোতা স্মারকের মাধ্যমে আইসিএমএবি-এর মতো পেশাজীবি একটি সংগঠনের সঙ্গে ঢাকা চেম্বারের ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করার পথ আরো সুদৃঢ় হলো।

দেশের ব্যবসা-বাণিজ্যসহ আর্থিক কর্মকাণ্ডে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা আনতে আইসিএমএবি-এর সদস্যদেরকে নিরলসভাবে কাজ করার আহ্বান জানান ডিসিসিআই সভাপতি। একইসঙ্গে শিল্প প্রতিষ্ঠানে অডিট কার্যক্রম পরিচালনায় উদ্যোক্তাদের মাঝে বিদ্যমান দূরত্ব কমাতে আইসিএমএবি-কে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।

আইসিএমএবি সভাপতি জসিম উদ্দিন আকন্দ বলেন, প্রতিটি লিস্টেড কোম্পানিতে পেশাদার কস্ট ম্যানেজমেন্ট হিসাবরক্ষকের মাধ্যমে ‘কস্ট অডিট সার্টিফিকেট’ বাস্তবায়ন করা প্রয়োজন। তিনি পেশাদার কস্ট ম্যানেজমেন্ট হিসাবরক্ষকের মাধ্যমে কোম্পানিগুলোর বিক্রি করা পণ্যের ব্যয় হিসাব নিরীক্ষণের প্রস্তাব করেন।

ডিসিসিআই’র ঊর্ধ্বতন সহ-সভাপতি এন কে এ মবিন দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের পাশাপাশি ব্যবসা সহায়ক পরিবেশ তৈরিতে আইসিএমএবি এবং ঢাকা চেম্বার কে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানান।

অনুষ্ঠানে ডিসিসিআই সহ-সভাপতি মোহাম্মদ বাশিরউদ্দিন, মহাসচিব (ভারপ্রাপ্ত) আফসারুল আরিফিন, সচিব মো. জয়নাল আব্দীন, ডিসিসিআই স্কিল ডেভেলপমেন্ট স্ট্যান্ডিং কমিটির আহ্বায়ক গোলাম জিলানী, আইসিএমএবি সহ-সভাপতি আবু বকর সিদ্দিকী, মো.মামুনুর রশিদ, এফসিএমএ, সেক্রেটারি মো. মুনিরুল ইসলাম, কোষাধ্যক্ষ মো. আলী হায়দার চৌধুরী, এফসিএমএ এবং আইসিএমএবি’র কাউন্সিলের সদস্য ও অর্থ মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম-সচিব মো. মাহফুজুল আলম খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এসআই/এসএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]