‘এশিয়া মার্কেটার অব দ্য ইয়ার’ অ্যাওয়ার্ড জিতল ‘স্বপ্ন’

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:৫৭ পিএম, ০৫ জানুয়ারি ২০২১

‘এএমএফ ৬ষ্ঠ এশিয়া মার্কেটিং এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড’ অর্জন করেছে দেশের শীর্ষ সুপারশপ ‘স্বপ্ন’। এশিয়া মার্কেটিং ফেডারেশন (এএমএফ) প্রদত্ত এ অ্যাওয়ার্ডটি এশিয়ার ‘মার্কেটিং কোম্পানি অব দ্য ইয়ার ২০২০’ নামে স্বীকৃত। ১৪টি দেশের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করে এই অ্যাওয়ার্ড জিতে নিয়েছে ‘স্বপ্ন।’

এএমএফ এ অঞ্চলের মার্কেটিংয়ের শীর্ষস্থানীয় পরিচালনা কমিটি। যার সদস্য দেশগুলোর মধ্যে রয়েছে জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া, সিঙ্গাপুর, চীন, থাইল্যান্ড, কম্বোডিয়া, হংকং, ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়া, মায়ানমার, ফিলিপাইন, শ্রীলঙ্কা, তাইওয়ান, ভিয়েতনাম ও বাংলাদেশ।

জুরি সদস্যরা ২০২০ সালের নভেম্বরে সকল মনোনয়ন নিখুঁতভাবে মূল্যায়ণ করেছেন এবং একটি কঠোর প্রক্রিয়ার মাধ্যমে বিজয়ীদের বাছাই করেন। এএমএফ -এর বাংলাদেশ চ্যাপ্টার মার্কেটিং সোসাইটি (এমএসবি) এবং বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরাম (বিবিএফ) দুটি বিভাগে মনোনীত প্রার্থীদের বেছে নিয়েছে। একটি হলো- মার্কেটিং কোম্পানি অব দ্য ইয়ার। অপরটি মার্কেটিং ৩.০ বিভাগে।

এরমধ্যে মার্কেটিং কোম্পানি অব দ্যা ইয়ার (এমসিওওয়াই), যার জন্য ‘স্বপ্ন’ মনোনীত হয়। সংস্থাটির বিদ্যমান বহুমুখিতা, উদ্ভাবন-শক্তি এবং মার্কেটিং কৌশলগুসমূহের প্রশংসনীয় গুণাবলী যা গ্রাহকের ও কমিউনিটি রুচি, হৃদয় এবং চেতনাকে প্রতিফলিত করে। ‘স্বপ্ন তাদের কোম্পানির পণ্য ও পরিষেবাদির মার্কেটিংয়ে অসামান্য প্রচেষ্টার জন্য স্বীকৃত হয়েছে। ২০২১ সালের ফেব্রুয়ারিতে সিঙ্গাপুরে এ অ্যাওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠিত হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

২০০৮ সালে ‘স্বপ্ন’ যাত্রা শুরু করে। বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরাম আয়োজিত বেস্টব্র্যান্ড অ্যাওয়ার্ড ২০১৬, ২০১৭, ২০১৮, ২০১৯ এবং ২০২০ সালে ‘সুপারস্টোর’ বিভাগে পর পর ৫ বার বেস্ট ব্র্যান্ড অ্যাওয়ার্ডে ভূষিত হয়। এছাড়া ২০১৯ এবং ২০২০ সালে পরপর দুই বছর সব ক্যাটাগরির মধ্যে দেশের প্রথম ১০টি ব্র্যান্ডের মধ্যে স্থান করে নিতে পেরেছে ‘স্বপ্ন’। এছাড়া সুপারব্র্যান্ডস বাংলাদেশের অধীনে ২০১৮ এবং ২০২০-২১ সালে ‘সুপারব্র্যান্ড’ হিসেবে পুরস্কার জিতেছে ‘স্বপ্ন’।

এএএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]