ইউএস-বাংলার এটিআর এয়ারক্রাফটের সেফটি ট্রেনিং সমাপ্ত

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৯:০৩ পিএম, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের এটিআর এয়ারক্রাফটের পাইলটদের সেফটি ট্রেনিং ও ইন্সট্রাক্টরদের কোর্স শেষ হয়েছে। কোর্স শেষে তাদের ক্রেস্ট ও সম্মাননা দেয়া হয়।

সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) এয়ারলাইন্সের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ক্যাপ্টেন মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ শিকদার অংশগ্রহণকারীদের হাতে ক্রেস্ট ও সম্মাননা তুলে দেন। ড্যাশ ৮-কিউ ৪০০ এয়ারক্রাফটের পাইলটদেরও সেফটি ট্রেনিং সফলতার জন্যও সম্মাননা তুলে দেয়া হয়।

সম্মাননাপ্রাপ্ত পাইলটদের মধ্যে ছিলেন- ক্যাপ্টেন শওকাতুর রহমান, ক্যাপ্টেন মাহমুদুল হাসান, ট্রেইনার ক্যাপ্টেন ফ্রেডরিক চোলা, ট্রেইনার ক্যাপ্টেন প্রসন্ন গুরাং ও ট্রেইনার ক্যাপ্টেন বার্নাবি অছোয়া লামো।

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বহরে যুক্ত হওয়া ব্র্যান্ডনিউ এটিআর ৭২-৬০০-এর দুই বছর উদযাপন উপলক্ষে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

এদিকে এটিআর ৭২-৬০০ ও ড্যাশ ৮-কিউ৪০০ এয়ারক্রাফটের পাইলটদের সেফটি ট্রেনিংয়ের ধারাবাহিকতায় বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এয়ারক্রাফটের পাইলটদের জন্যও সেফটি কোর্স পরিচালনা করছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স।

বর্তমানে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমান বহরে মোট ১৩টি এয়ারক্রাফট রয়েছে। এর মধ্যে ৪টি বোয়িং ৭৩৭-৮০০, ব্র্যান্ডনিউ এটিআর ৭২-৬০০ ও তিনটি ড্যাশ ৮-কিউ৪০০ এয়ারক্রাফট। এছাড়া শিগগিরই আরও তিনটি এটিআর ৭২-৬০০ এয়ারক্রাফট যুক্ত করার পরিকল্পনা রয়েছে প্রতিষ্ঠানটির।

কোর্স সমাপ্তি অনুষ্ঠানে অন্যান্য অতিথিদের মধ্যে ছিলেন, ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের পরিচালক- মো. মুসা মোল্লাহ (মানব সম্পদ), পরিচালক নুরুদ্দিন আহমেদ আল মাসুদ (অপারেশন) ও এয়ারলাইন্সের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ ট্রেনিংয়ে অংশগ্রহণকারী পাইলটবৃন্দ।

এমইউ/জেডএইচ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]