সরকারি ভর্তুকিতে জাপানি ইয়ানমার কম্বাইন হারভেস্টার বিতরণ

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:৫১ পিএম, ০৮ এপ্রিল ২০২১

সরকারি ভর্তুকি প্রকল্পের মাধ্যমে সারাদেশের কৃষকদের মাঝে ধান কাটা, মাড়াই, ঝাড়াই ও বস্তাবন্দি করার আধুনিক যন্ত্র জাপানের ইয়ানমার কম্বাইন হারভেস্টার বিতরণ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) কৃষিযন্ত্র বিতরণী অনুষ্ঠানটি উদ্বোধন করেন কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক। অনুষ্ঠানটি একযোগে সারাদেশে অনুষ্ঠিত হয় যেখানে উপস্থিত ছিলেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের পরিচালকরা। অনুষ্ঠানে দেশের ১৪টি উপজেলায় ৪০টি ইয়ানমার হারভেস্টার ডেলিভারি দেয়া হয়। প্রতিষ্ঠানটির পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

ইয়ানমার হারভেস্টারে রয়েছে, অত্যাধুনিক স্মার্ট অ্যাসিস্ট রিমোট সিস্টেম (SA-R), যা দেশের কৃষিতে এক অনন্য সংযোজন। এর মাধ্যমে হারভেস্টারের মালিক ঘরে বসেই হারভেস্টারের প্রয়োজনীয় সকল তথ্য জানতে পারবেন। এতে যেমন কৃষক উপকৃত হবে সেই সঙ্গে সরকারও ভর্তুকিতে সরবরাহ করা হারভেস্টারের যাবতীয় তথ্য জানতে পারবেন।

বাংলাদেশের জমি ও ফসল উপযোগী অত্যাধুনিক সেন্সরবিশিষ্ট ইয়ানমার কম্বাইন হারভেস্টার দ্বারা কাঁদা ও শুয়ে পড়া জমির ধান/গম কাটা, মাড়াই, ঝাড়াই ও বস্তাবন্দি করা যায়। এক একর জমির ধান/গম কাটতে সময় লাগে মাত্র এক ঘণ্টা এবং জ্বালানি খরচ হয় মাত্র ৮-১০ লিটার ডিজেল। প্রতি একরে খরচ বাদে লাভ হয় ৩ হাজার ৫০০ টাকা থেকে ৪ হাজার টাকা। এতে খরচ বাঁচে ৬১ শতাংশ এবং শ্রম বাঁচে ৭০ শতাংশ।

এই হারভেস্টার দ্বারা দিনে প্রায় ছয় থেকে সাত একর জমির ধান কাঁটা যায়। এসিআই মটরস সারাদেশে তাদের দক্ষ নেটওয়ার্ক ও লোকবলের মাধ্যমে এর বিক্রয়োত্তর সেবা নিশ্চিত করছে। অত্যাধুনিক প্রযুক্তির এই কম্বাইন হারভেস্টার ব্যবহারের ফলে একদিকে যেমন কৃষক উপকৃত হচ্ছে, অন্যদিকে দেশের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত হচ্ছে।

এআরএ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]