সারা দেশে নিত্যপণ্যের বাজারে অভিযান

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:৫৭ পিএম, ১০ এপ্রিল ২০২১

সারা দেশে নিত্যপণ্যের বাজারে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর অভিযান পরিচালনা করেছে। নকল পণ্য, ওজনে কারচুপিসহ বিভিন্ন অপরাধে ৩১ প্রতিষ্ঠানকে ১ লাখ ১৩ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা আরোপ ও আদায় করা হয়।

শনিবার (১০ এপ্রিল) অধিদফতরের মহাপরিচালক প্রদত্ত ক্ষমতাবলে দিনব্যাপী এ অভিযান পরিচালনা করে। একই সময়ে মহামারি কোভিড মোকাবেলায় অধিদফতরের পক্ষ থেকে বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ করা হয়।

শনিবার প্রতিষ্ঠানটির উদ্যোগে ঢাকা মহানগরসহ বিভিন্ন জেলা ও উপজেলাতে বাজার অভিযান পরিচালনা হয়। অভিযানে ভোক্তা ও ব্যবসায়ীদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে বাজারে পণ্য ক্রয়-বিক্রয় করতে সতর্ক করে টিম। বাজারে মাস্ক ব্যবহার ও সামাজিক দূরত্ব মেনে চলার জন্য সচেতনতামূলক প্রচার করা হয়।

ঢাকা মহানগরীর কারওয়ান বাজার, মোহাম্মদপুর কৃষি মার্কেট, নিউমার্কেটসহ, হাতিরপুল বাজার,পলাশী বাজারসহ বিভিন্ন সুপারশপ ও ফার্মেসিতে অভিযান পরিচালনা করেন ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের উপ-পরিচালক (উপসচিব) মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার, প্রধান কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মো. মাসুম আরেফিন, আফরোজা রহমান, বিকাশ চন্দ্র দাস, ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক ফাহমিনা আক্তার।

এছাড়াও ঢাকার বাইরে বিভাগীয় কার্যালয়ের উপ-পরিচালক ও জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালকের নেতৃত্বে বিভিন্ন বাজারে তদারকি ও সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়।

jagonews24

এছাড়া ঢাকা মহানগরের বিভিন্ন বাজারে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় পরিচালিত মোবাইল টিমের সঙ্গে বাজার তদারকি করেন অধিদফতরের প্রধান কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক রজবী নাহার রজনী, প্রনব কুমার প্রামানিক, তাহমিনা, ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী রোজিনা সুলতানা, মাগফুর রহমান ও মাহমুদা আক্তার।

তদারকিকালে ভোজ্যতেল, চাল, পেঁয়াজ, ছোলা, চিনি, খেজুর, স্যানিটাইজার ও মাস্কসহ অন্যান্য নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য যৌক্তিক মূল্যে বিক্রয় হচ্ছে কিনা তা মনিটরিং করা হয়।

এছাড়া পণ্যের মূল্য তালিকা প্রদর্শন না করা, মূল্য তালিকার সঙ্গে বিক্রয় রশিদের গরমিল, পণ্যের ক্রয় রসিদ সংরক্ষণ না করা, অনিবন্ধিত ওষুধ, মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ ও পণ্য, নকল মাস্ক -স্যানিটাইজার, ওজনে কারচুপিসহ ভোক্তাস্বার্থবিরোধী বিভিন্ন অপরাধে সারাদেশে ৩১টি প্রতিষ্ঠানকে এক লাখ ১৩ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা আরোপ ও আদায় করা হয়।

এছাড়াও ঢাকাসহ সারাদেশে টিসিবি কর্তৃক ন্যায্যমূল্যের পণ্য বিক্রয় কার্যক্রম (ট্রাক সেল) তদারকি করা হয়।

এ প্রসঙ্গে অধিদফতরের মহাপরিচালক বাবলু কুমার সাহা বলেন, দেশে পর্যাপ্ত পণ্যের মজুত রয়েছে এবং সরবরাহ স্বাভাবিক রয়েছে। এছাড়া সরকারি সংস্থা টিসিবির মাধ্যমে সরকার ভর্তুকি মূল্যে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য বিক্রয় করছে। তাই এই সময়ে আতংকিত হয়ে প্রয়োজনের অতিরিক্ত পণ্য কেনা হতে বিরত থাকতে ভোক্তাদের আহ্বান জানান তিনি।

ইএআর/এমআরএম/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]