সিএমএসএমই প্যাকেজ থেকে ঋণ দেয়ার সময় বাড়ল

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:৩৫ পিএম, ১২ এপ্রিল ২০২১

কোভিড-১৯ মহামারিতে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া ছোট উদ্যোক্তাসহ এসএমই শিল্পপ্রতিষ্ঠানগুলোর জন্য ঋণ নিশ্চিতে বেশ কিছু উদ্যোগ নিয়েছে সরকার ও কেন্দ্রীয় ব্যাংক। সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত এসব প্রতিষ্ঠানকে দেয়া হয়েছে নানা সুযোগ-সুবিধা। তবুও ঋণ দিতে আগ্রী নয় দেশে কার্যরত অধিকাংশ ব্যাংক। এর ফলে বারবার সময় বাড়ানোর পরও পড়ে আছে এ খাতের প্যাকেজের পাঁচ হাজার ৫৩৮ কোটি টাকা।

এ খাতে শতভাগ ঋণ বিতরণে ফের সময় বাড়িয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত সিএমএসএমই প্যাকেজ থেকে ঋণ পাবেন ছোট ও মাঝারি উদ্যোক্তারা।

সোমবার (১২ এপ্রিল) বাংলাদেশ ব্যাংকের এসএমই অ্যান্ড স্পেশাল প্রোগ্রামস ডিপার্টমেন্ট ঋণ বিতরণের সময় বাড়িয়ে একটি সার্কুলার জারি করে দেশে কার্যরত সব তফসিলি ব্যাংকের প্রধান নির্বাহী বরাবর চিঠি পাঠিয়েছে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের জারি করা সার্কুলারে বলা হয়েছে, ‘ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানসমূহ হতে প্রাপ্ত তথ্য বিশ্লেষণে দেখা যাচ্ছে যে, চলতি বছরের ৩১ মার্চ পর্যন্ত নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রার বিপরীতে মাত্র ৭২ দশমিক ৩১ শতাংশ ঋণ বিতরণ করা হয়েছে; অংকে যার পরিমাণ দাঁড়ায় ১৪ হাজার ৪৬২ কোটি টাকা। এ হিসাবে ২০ হাজার কোটি টাকার প্যাকেজে এখনও পাঁচ হাজার ৫৩৮ কোটি টাকা বিতরণ হয়নি।

বাংলাদেশ ব্যাংক বলছে, এমতাবস্থায় আলোচ্য প্যাকেজের সম্পূর্ণ বাস্তবায়ন নিশ্চিত করার লক্ষ্যে প্রণোদনা প্যাকেজটির প্রথম পর্যায়ের (১ম বছর) বাস্তবায়নের সময়সীমা জুন ৩০, ২০২১ পর্যন্ত বাড়ানো হলো। পূর্বের জারি করা অন্যান্য নির্দেশনা অপরিবর্তিত থাকবে।

ব্যাংক কোম্পানি আইন, ১৯৯১ এর ৪৫ এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইন, ১৯৯৩ এর ১৮ ধারায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে এ নির্দেশনা জারি করা হলো- সার্কুলারে উল্লেখ করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।’

ইএআর/বিএ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]