বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ হারানোর শীর্ষে যমুনা ব্যাংক

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:১৫ পিএম, ২৩ এপ্রিল ২০২১

গত সপ্তাহে বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ হারানোর শীর্ষ স্থানটি দখল করেছে ব্যাংক খাতের প্রতিষ্ঠান যমুনা ব্যাংক। বিনিয়োগকারীরা কোম্পানিটির শেয়ার কিনতে আগ্রহী না হওয়ায় সপ্তাহজুড়েই দাম কমেছে। এতে গত সপ্তাহে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) দাম কমার শীর্ষ স্থানটি দখল করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

সপ্তাহজুড়ে যমুনা ব্যাংকের শেয়ার দাম কমেছে ১১ দশমিক ৭০ শতাংশ। টাকার অঙ্কে প্রতিটি শেয়ারের দাম কমেছে ২ টাকা ৬০ পয়সা। সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস শেষে কোম্পানিটির শেয়ার দাম দাঁড়িয়েছে ১৬ টাকা ৬০ পয়সা, যা আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস শেষে ছিল ১৮ টাকা ৮০ পয়সা।

শেয়ারের এমন দাম কমলেও সম্প্রতি কোম্পানিটি শেয়ারহোল্ডারদের জন্য সাড়ে ১৭ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। কোম্পানিটি আগেও বিনিয়োগকারীদের ভালো লভ্যাংশ দিয়েছে। এর মধ্যে ২০১৯ সালে ১৫ শতাংশ নগদ, ২০১৮ সালে ২০ শতাংশ নগদ, ২০১৭ সালে ২২ শতাংশ বোনাস এবং ২০১৬ সালে সাড়ে ২০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেয় এই ব্যাংকটি।

এদিকে দাম কমে যাওয়ায় বিনিয়োগকারীদের একটি অংশ কোম্পানিটির শেয়ার বিক্রি করে দিয়েছেন। ফলে সপ্তাহজুড়ে লেনদেন হয়েছে ১৩ কোটি ৪৩ লাখ ৭৯ হাজার টাকা। এতে প্রতি কার্যদিবসে গড়ে লেনদেন হয়েছে ২ কোটি ৬৮ লাখ ৭৫ হাজার টাকা।

যমুনা ব্যাংকের পরেই গত সপ্তাহে দাম কমার তালিকায় রয়েছে জুট স্পিনার্স। সপ্তাহজুড়ে এই প্রতিষ্ঠানটির শেয়ার দাম কমেছে ৯ দশমিক ৯৪ শতাংশ। ৯ দশমিক ২৬ শতাংশ দাম কামার মাধ্যমে পরের স্থানে রয়েছে খুলনা পাওয়ার।

এছাড়া গত সপ্তাহে বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ হারানোর শীর্ষ ১০ প্রতিষ্ঠানের তালিকায় থাকা- রিং শাইন টেক্সটাইলের ৯ দশমিক ২৯ শতাংশ, এমএল ডাইংয়ের ৯ দশমিক ১১ শতাংশ, সোনারগাঁও টেক্সটাইলের ৮ দশমিক ৯২ শতাংশ, সায়হাম টেক্সটাইলের ৮ দশমিক ২৯ শতাংশ, সুহৃদ ইন্ডাস্ট্রিজের ৮ দশমিক ১৫ শতংশ, মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের ৭ দশমিক ৯৬ শতাংশ এবং ভিএফএস থ্রেড ডাইংয়ের ৭ দশমিক ৯৪ শতাংশ দাম কমেছে।

এমএএস/এএএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]