এক নজরে সাত কোম্পানির লভ্যাংশ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১০:৪৩ এএম, ০২ মে ২০২১

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ৬ প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা পর্ষদ ২০২০ সালের ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত বছরে শেয়ারহোল্ডারদের জন্য লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। এছাড়া একটি প্রতিষ্ঠান ২০২১ সালের জানুয়ারি-মার্চ প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদনের ওপর ভিত্তি করে অন্তর্বর্তী লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে।

লভ্যাংশ ঘোষণা করা প্রতিষ্ঠানগুলো হল- রেকিট বেনকিজার, পিপলস ইন্স্যুরেন্স, রুপালী ইন্স্যুরেন্স, ইস্টার্ন ইন্স্যুরেন্স, সিটি জেনারেল ইন্স্যুরেন্স, সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংক এবং পদ্মা ইসলামী লাইফ ইন্সুরেন্স। এরমধ্যে পদ্মা ইসলামী লাইফ ইন্সুরেন্স অন্তর্বর্তী লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে।

কোম্পানি সাতটির দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে রোববার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে। ডিএসই জানিয়েছে, লভ্যাংশ ঘোষণার কারণে আজ কোম্পানিগুলোর শেয়ারের দাম বাড়ার ক্ষেত্রে কোনো সার্কিট ব্রেকার থাকবে না।

অর্থাৎ শেয়ার দাম যতখুশি বাড়তে পারবে। তবে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) নির্ধারিত সীমার নিচে শেয়ার দাম নামতে পারবে না।

রেকিট বেনকিজার

বহুজাতিক এই কোম্পানিটি দেশের শেয়ারবাজারের ইতিহাসে সর্বোচ্চ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। কোম্পানিটি ১৪০০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেবে। এর আগে কোনো কোম্পানি এক হিসাব বছরে এতো লভ্যাংশ ঘোষণা করেনি।

লভ্যাংশের বিষয়ে পরিচালনা পর্ষদের নেয়া সিদ্ধান্ত শেয়ারহোল্ডারদের অনুমোদনের জন্য বার্ষিক সাধারণ সভার (এজিএম) তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ২২ জুন। আর রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ২৭ মে। সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটি শেয়ারপ্রতি মুনাফা করেছে ১৫৬ টাকা ৩৮ পয়সা এবং শেয়ারপ্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ১৭০ টাকা ৯৫ পয়সা।

পিপলস ইন্স্যুরেন্স

কোম্পানিটি ১১ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেবে। লভ্যাংশের বিষয়ে পরিচালনা পর্ষদের নেয়া সিদ্ধান্ত শেয়ারহোল্ডারদের অনুমোদনের জন্য এজিএম তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ২৯ জুন । আর রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ৩০ মে। সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটি শেয়ারপ্রতি মুনাফা করেছে ২ টাকা ২৬ পয়সা এবং শেয়ারপ্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ২৮ টাকা ৬০ পয়সা।

রূপালী ইন্স্যুরেন্স

কোম্পানিটি ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেবে। লভ্যাংশের বিষয়ে পরিচালনা পর্ষদের নেয়া সিদ্ধান্ত শেয়ারহোল্ডারদের অনুমোদনের জন্য এজিএম তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ৩ আগস্ট। আর রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ১০ জুন। সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটি শেয়ারপ্রতি মুনাফা করেছে ১ টাকা ৯০ পয়সা এবং শেয়ারপ্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ২১ টাকা ৩০ পয়সা।

ইস্টার্ন ইন্স্যুরেন্স

কোম্পানিটি ২০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেবে। লভ্যাংশের বিষয়ে পরিচালনা পর্ষদের নেয়া সিদ্ধান্ত শেয়ারহোল্ডারদের অনুমোদনের জন্য এজিএম তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ২৯ জুলাই। আর রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ২৫ মে। সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটি শেয়ারপ্রতি মুনাফা করেছে ৩ টাকা ৩৩ পয়সা এবং শেয়ারপ্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ৪৭ টাকা ৩৩ পয়সা।

সিটি জেনারেল ইন্স্যুরেন্স

কোম্পানিটি ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেবে। লভ্যাংশের বিষয়ে পরিচালনা পর্ষদের নেয়া সিদ্ধান্ত শেয়ারহোল্ডারদের অনুমোদনের জন্য এজিএম তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ৩০ জুন। আর রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ২৪ মে। সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটি শেয়ারপ্রতি মুনাফা করেছে ১ টাকা ৭৭ পয়সা এবং শেয়ারপ্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ১৬ টাকা ৮৮ পয়সা।

সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংক

কোম্পানিটি ৫ শতাংশ নগদ ও ৫ শতাংশ বোনাস শেয়ার লভ্যাংশ দেবে। লভ্যাংশের বিষয়ে পরিচালনা পর্ষদের নেয়া সিদ্ধান্ত শেয়ারহোল্ডারদের অনুমোদনের জন্য এজিএম তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ৬ জুলাই। আর রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ১ জুন। সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটি শেয়ারপ্রতি মুনাফা করেছে ১ টাকা ৬৭ পয়সা এবং শেয়ারপ্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ১৯ টাকা ২৯ পয়সা।

পদ্মা ইসলামী লাইফ ইন্সুরেন্স

কোম্পানিটি ২ শতাংশ অন্তর্বর্তী নগদ লভ্যাংশ দেবে। লভ্যাংশ পাওয়ার যোগ্য বিনিয়োগকারী নির্ধারণে রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ২৭ মে।

এমএএস/এএএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]