নিত্যপণ্য বিক্রিতে অনিয়ম : ২৩ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা অর্ধ লাখ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:৩৪ পিএম, ১১ মে ২০২১ | আপডেট: ০৯:০২ পিএম, ১১ মে ২০২১

পবিত্র রমজান উপলক্ষে নিত্যপণ্যের দাম স্থিতিশীল রাখতে রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশের বিভিন্ন বাজার ও প্রতিষ্ঠানে অভিযান পরিচালনা করেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর। এসময় ১২টি মনিটরিং টিম ভোক্তাস্বার্থবিরোধী বিভিন্ন অপরাধে ২৩টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে ৫০ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা করা হয়।

মঙ্গলবার (১১ মে) দিনব্যাপী অভিযান পরিচালনা করে এসব জরিমানা আদায় করা হয়।

এদিন ঢাকা মহানগরে ছয়টি মনিটরিং টিম ৯টি পাইকারি ও খুচরা বাজার এবং বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে তদারকি করা হয়। রাজধানীর সব বাজার ও প্রতিষ্ঠানে অভিযান পরিচালনা করেন প্রধান কার্যালয়ের উপপরিচালক আফরোজা রহমান, বিকাশ চন্দ্র দাস, সহকারী পরিচালক প্রণব কুমার প্রামাণিক ও ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মাগফুর রহমান।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয় কর্তৃক পরিচালিত মোবাইল টিমের সঙ্গে বাজার তদারকি করেন অধিদফতরের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক রোজিনা সুলতানা ও সহকারী পরিচালক মাহমুদা আক্তার।

রাজধানীর বাইরে বিভাগীয় কার্যালয়ের উপ-পরিচালক ও জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালকদের নেতৃত্বে জেলা উপজেলা পর্যায়ের বিভিন্ন বাজার ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে তদারকি এবং সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালিত হয়।

vokta

রাজধানীর কারওয়ান বাজার, মালিবাগ, মালিবাগ রেলগেট, শান্তিনগর, মিরপুর শাহ্ আলী, মিরপুর ৬নং ঝিগাতলা, খিলগাঁও, খিলগাঁও তালতলা এলাকার বিভিন্ন কাঁচাবাজার, নিত্যপণ্যের দোকান ও অন্যান্য প্রতিষ্ঠানে তদারকিকালে সবজি, পেঁয়াজ, ছোলা, ডাল, ভোজ্যতেল, চিনি, খেজুরসহ অন্যান্য নিত্যপণ্য যৌক্তিকমূল্যে বিক্রয় হচ্ছে কিনা তা তদারকি করা হয়।

আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য, স্বাস্থ্য বিভাগ, কৃষি বিভাগ, মৎস্য বিভাগ, ক্যাবসহ সংশ্লিষ্ট শিল্প ও বণিক সমিতির প্রতিনিধিদের অধিদফতর পরিচালিত বাজার অভিযানে সহযোগিতা প্রদান করেন।

বাজার তদারকিকালে ভোক্তা অধিকার বিষয়ে জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ভোক্তা ও ব্যবসায়ীদের মধ্যে লিফলেট, প্যাম্পলেট বিতরণ এবং করোনাকালে মাস্ক পরিধানসহ স্বাস্থ্যবিধি পরিপালনের জন্য হ্যান্ডমাইকে সংশ্লিষ্টদের প্রয়োজনীয় পরামর্শ দেয়া হয়।

এছাড়াও জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন অনুযায়ী ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার মাধ্যমে ভোক্তা অধিকার নিশ্চিতকরণসহ স্থিতিশীল বাজার ব্যবস্থা গড়ে তোলার লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেন।

ইএআর/এএএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]