অপ্রদর্শিত আয় ও রেমিট্যান্স থেকে শেয়ারবাজারে টাকা বিনিয়োগ হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:৩২ পিএম, ০৪ আগস্ট ২০২১
অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল/ফাইল ছবি

শেয়ারবাজারে অপ্রদর্শিত আয় ও রেমিট্যান্স থেকে টাকা বিনিয়োগ হয়েছে উল্লেখ করে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল জানিয়েছেন, আর্থিক প্রণোদনা প্যাকেজ থেকে যেভাবে বলা হচ্ছে সেভাবে টাকা যায়নি।

বুধবার (৪ আগস্ট) দুপুরে অর্থমন্ত্রীর সভাপতিত্বে ভার্চুয়ালি ২৬তম সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠক শেষে অনলাইনে ব্রিফিংয়ে অর্থমন্ত্রী সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

প্রণোদনার প্যাকেজের ঋণের টাকা শেয়ারবাজারে বিনিয়োগের অভিযোগের বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী বলেন, আর্থিক প্রণোদনা প্যাকেজ থেকে কোনো টাকা গেছে কি-না সেটি জানতে পারিনি। আপনি (সাংবাদিক) যেভাবে বলেছেন, সেভাবে টাকা যায়নি। আমাদের টাকা যেটা গেছে, রেমিট্যান্স থেকে টাকা গেছে। অপ্রদর্শিত অর্থ যেটাকে আমরা বলেছিলাম ট্যাক্স দেয়া হলে এটাকে আমরা বৈধ হিসেবে গণ্য করব- সেখানে থেকে টাকা গেছে। অপ্রদর্শিত আয় আর রেমিট্যান্স থেকে টাকা গেছে।

তিনি বলেন, রেমিট্যান্স থেকে টাকা যাবেই, এটা তাদের টাকা। তারা যেকোনো জায়গায় এটি ব্যয় করতে পারেন। এছাড়া আমার কাছে আর কোনো তথ্য নেই।

আ হ ম মুস্তফা কামাল জানান, আজকের ক্রয় সংক্রান্ত কমিটির অনুমোদনের জন্য ১১টি প্রস্তাব উত্থাপন করা হয়েছিল। প্রস্তাবনাগুলোর মধ্যে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের পাঁচটি, খাদ্য মন্ত্রণালয়ের দুইটি, শিল্প মন্ত্রণালয়ের দুইটি, সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের একটি এবং মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের একটি প্রস্তাবনা ছিল।

তিনি আরও জানান, ক্রয় কমিটির অনুমোদিত ১১টি প্রস্তাবের মধ্যে ৯টি প্রস্তাবে মোট অর্থের পরিমাণ ১ হাজার ৩৪২ কোটি ৮০ লাখ ২ হাজার ১৭৬ টাকা। মোট অর্থায়নের মধ্যে সরকারি তহবিল (জিওবি) থেকে ব্যয় হবে ৯১০ কোটি ৯৭ লাখ ২৮ হাজার ৬৯৯ টাকা এবং বিশ্বব্যাংক ও দেশীয় ব্যাংক থেকে ঋণ ৪৩১ কোটি ৮২ লাখ ৭৩ হাজার ৪৭৭ টাকা।

আইএইচআর/এমআরআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]