আইডিএলসির ডিজিটাল সেভিংস সেবা বিকাশে

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:১২ পিএম, ০২ সেপ্টেম্বর ২০২১

দেশের সর্ববৃহৎ আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইডিএলসি ফাইন্যান্স প্রথমবারের মতো নিয়ে এসেছে ‘ডিজিটাল সেভিংস সেবা’।দেশব্যাপী আর্থিক অন্তর্ভুক্তির বাইরে থাকা জনগোষ্ঠী বিকাশ অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে সরাসরি আইডিএলসি ফাইন্যান্সের বিভিন্ন মেয়াদি সঞ্চয় সেবা নিতে পারবেন।

আইডিএলসির প্রধান কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আইডিএলসির সিইও অ্যান্ড এমডি এম জামাল উদ্দিন ও বিকাশের সিইও কামাল কাদীরসহ উভয় প্রতিষ্ঠানের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

আইডিএলসির এই উদ্যোগের ফলে বিকাশ গ্রাহকরা এখন যে কোনো সময় যে কোনো স্থান থেকে সহজে কয়েকটি ধাপ অনুসরণ করে ক্ষুদ্র অংকের এই মাসিক সঞ্চয় সেবা নিতে পারবেন। প্রতি মাসের নির্ধারিত তারিখে সঞ্চয়ের কিস্তিও বিকাশ অ্যাপ থেকেই জমা দিতে পারবেন ও সঞ্চয়ের মেয়াদ পূরণ হওয়ার পরে মুনাফাসহ সব টাকা গ্রাহকরা তাদের বিকাশ অ্যাকাউন্টেই পেয়ে যাবেন। এই সেবা সমাজের সকল শ্রেণি-পেশার মানুষকে সঞ্চয়ে উদ্বুদ্ধ করবে বলে আশা করা হচ্ছে এবং বাস্তবিক অর্থে সঞ্চয়ের পদ্ধতিকে আরও সহজ, সাশ্রয়ী, নিরাপদ ও লাভজনক করে তুলবে।

এই সেবার আওতায় বিকাশ গ্রাহকরা বর্তমানে মাসিক পাঁচশ, এক হাজার, দুই হাজার ও তিন হাজার টাকা কিস্তিতে সর্বনিম্ন দুই বছর থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ চার বছর মেয়াদে সরাসরি আইডিএলসি ফাইন্যান্সের সেভিংস প্রকল্প নিতে পারবেন। প্রতি মাসের নির্ধারিত তারিখে বিকাশ অ্যাকাউন্ট থেকে সঞ্চয়ের কিস্তি স্বয়ংক্রিয়ভাবে আইডিএলসিতে জমা হয়ে যাবে।

অ্যাকাউন্টে প্রয়োজনীয় ব্যালেন্স রাখার জন্য নির্ধারিত তারিখের আগে গ্রাহককে নোটিফিকেশন দেওয়া হবে। গ্রাহকরা মোট জমার পরিমাণ, সঞ্চয়ের মেয়াদ ও মুনাফার পরিমাণসহ প্রয়োজনীয় সব তথ্য বিকাশ অ্যাপ থেকে ‘লাইভ’ দেখতে পারবেন। সঞ্চয়ের মেয়াদোত্তীর্ণ হলে বা ম্যাচিউরড হয়ে যাওয়ার পর মুনাফাসহ সম্পূর্ণ টাকা গ্রাহকের বিকাশ অ্যাকাউন্টেই চলে আসবে ও সঞ্চয়ের যে কোনো পর্যায়ে টাকা তুলে নিতে চাইলে তাও বিকাশ অ্যাপের মাধ্যমেই করতে পারবেন গ্রাহক।

এ বিষয়ে আইডিএলসির সিইও অ্যান্ড এমডি এম জামাল উদ্দিন বলেন, প্রথাগত আর্থিক সেবা খাতের সঙ্গে বিকাশের মতো এমএফএস সেবার মাধ্যমে গ্রাহকদের সংযুক্ত করায় উদাহরণ তৈরি করলো আইডিএলসি ফাইন্যান্স ও বিকাশের এই যৌথ সেবা। ক্ষুদ্র সঞ্চয়ের মতো সেবার এই সহজলভ্যতা সাধারণ মানুষের জীবনমান উন্নয়ন ও অর্থনৈতিক বিকাশেও ভূমিকা রাখবে।

বিকাশের সিইও কামাল কাদীর বলেন, সারাদেশের কোটি কোটি মানুষের জীবনের অনুষঙ্গে পরিণত হওয়া বিকাশ আবারও প্রযুক্তিগত উদ্ভাবনকে কাজে লাগিয়ে আর্থিক প্রতিষ্ঠানের সঞ্চয় সেবা পাওয়াকে আরও সহজলভ্য করেছে। সঞ্চয়ে আরও উৎসাহিত করতে আইডিএলসির সঞ্চয় সেবা প্রান্তিক মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিয়ে তাদের আর্থিক ব্যবস্থাপনায় সক্ষমতা ও স্বাধীনতা আনলো।

সেভিংস সেবা চালু করতে বিকাশ অ্যাপের হোম স্ক্রিনে ‘ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে সঞ্চয়/সেভিংস’ আইকন ক্লিক করে নিজের ও নমিনির তথ্য যোগ করে কয়েকটি সহজ ধাপে সেবাটি চালু করতে পারবেন গ্রাহকরা।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনা অনুযায়ী, এই সঞ্চয়ের মুনাফা ও অন্যান্য বিধিবিধান প্রতিপালিত হবে ও ই-কেওয়াইসির মাধ্যমে নিবন্ধিত বিকাশ গ্রাহকরাই আইডিএলসির এই সঞ্চয় সেবা নিতে পারছেন। পরে সব গ্রাহক এই সেবার আওতায় আসবেন বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

ইএআর/এআরএ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]