সূচকে মিশ্র প্রবণতা, কমেছে লেনদেন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:২১ পিএম, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবার বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম কমলেও প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান মূল্যসূচক বেড়েছে। তবে কমেছে শরিয়াহ্ সূচক।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দামের পাশাপাশি কমেছে সবকটি মূল্যসূচক। সেইসঙ্গে দুই বাজারেই কমেছে লেনদেনের পরিমাণ।

এদিন ডিএসইতে সিংহভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার দাম বাড়ার মধ্যদিয়ে লেনদেন শুরু হয়। ফলে প্রথম মিনিটেই ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স ২০ পয়েন্ট বেড়ে যায়। লেনদেনের প্রথম একঘণ্টা সূচকের ঊর্ধ্বমুখী ধারা অব্যাহত থাকে।

কিন্তু প্রথম ঘণ্টায় লেনদেন শেষ হতেই একের পর এক প্রতিষ্ঠানের দরপতন হতে থাকে। ফলে একপর্যায়ে ঋণাত্মক হয়ে পড়ে সূচক। তবে শেষ আধাঘণ্টার লেনদেনে কিছু প্রতিষ্ঠানের দাম বাড়ায় পতনের হাত থেকে রক্ষা পায় শেয়ারবাজার।

দিনশেষে ডিএসইতে দাম বেড়েছে ১৪৫টির শেয়ার ও ইউনিট। বিপরীতে ১৮৫টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম কমেছে। অপরিবর্তিত রয়েছে বাকি ৪৫টির।

এতে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ৮ পয়েন্ট বেড়ে ৭ হাজার ২৫০ পয়েন্টে উঠে এসেছে। অপর দুই সূচকের মধ্যে ডিএসইর শরিয়াহ্ ১ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ৫৮১ পয়েন্টে ও ডিএসই-৩০ সূচক দশমিক ৩৬ পয়েন্ট বেড়ে ২ হাজার ৬৭৩ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

এদিকে শেয়ার বাজারে লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ৮৫২ কোটি ৪২ লাখ টাকা। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ২ হাজার ১৫০ কোটি ৬৮ লাখ টাকা। সে হিসেবে লেনদেন কমেছে ২৯৮ কোটি ২৬ লাখ টাকা।

টাকার অংকে ডিএসইতে সব থেকে বেশি লেনদেন হয়েছে বেক্সিমকোর শেয়ার। কোম্পানিটির ৯৬ কোটি ৯০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা ওরিয়ান ফার্মার ৭৭ কোটি ৪১ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে। ৭১ কোটি ৯১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে রয়েছে বেক্সিমকো ফার্মা।

এছাড়া ডিএসইতে লেনদেনের দিক থেকে শীর্ষ দশ প্রতিষ্ঠানের তালিকায় রয়েছে- ডেল্টা লাইফ ইন্সুরেন্স, এসএস স্টিল, আলিফ ম্যানুফ্যাকচারিং, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল, ম্যাকসন স্পিনিং, অ্যাক্টিভ ফাইন এবং সাইফ পাওয়ার টেক।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক মূল্যসূচক সিএএসপিআই কমেছে ১১ পয়েন্ট। এ বাজারে লেনদেন হয়েছে ৫০ কোটি ৮১ লাখ টাকা। লেনদেনে অংশ নেওয়া ৩১৫টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১১৫টির দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ১৭৪টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৬টির।

এমএএস/এমএএইচ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]