সূচকের পতন, কমেছে লেনদেন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:৫৮ পিএম, ১১ অক্টোবর ২০২১

 

সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবস সোমবার (১১ অক্টোবর) দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) মূল্য সূচকের পতন হয়েছে। সেই সঙ্গে কমেছে লেনদেনের পরিমাণ।

এদিন ডিএসইতে লেনদেন শুরু হয় অধিকাংশ প্রতিষ্ঠানের দাম বাড়ার মাধ্যমে। এতে প্রথম মিনিটেই ডিএসইর প্রধান মূল্য সূচক ডিএসইএক্স ৩৪ পয়েন্ট বেড়ে যায়। লেনদেনের প্রথম এক ঘণ্টা বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের দাম বাড়ার ধারা অব্যাহত থাকে।

তবে প্রথম ঘণ্টার লেনদেন শেষ হতেই বদলাতে থাকে চিত্র। দাম বাড়ার তালিকায় নাম লেখানো একের পর এক প্রতিষ্ঠান পতনের তালিকায় আসতে থাকে। সময়ের সঙ্গে বড় হয় সেই তালিকা। ফলে দিনের শেষে বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম কমার পাশাপাশি কমে মূল্য সূচক।

দিনের লেনদেন শেষে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ২২ পয়েন্ট কমে ৭ হাজার ৩৪৫ পয়েন্টে নেমে গেছে। অপর দুই সূচকের মধ্যে ডিএসইর শরিয়াহ্ দশমিক ১১ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৫৯৬ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। আর বাছাই করা ভালো কোম্পানি নিয়ে গঠিত ডিএসই-৩০ সূচক ৮ পয়েন্ট কমে ২ হাজার ৭৫৭ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

দিনভর ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেওয়া ৯৭টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দাম বাড়ার তালিকায় নাম লিখিয়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ২৫৯টির। আর ২০টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

আজ ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে এক হাজার ৮৪৮ কোটি ৫৭ লাখ টাকা। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয় এক হাজার ৯৬২ কোটি ৮৭ লাখ টাকা। সে হিসাবে লেনদেন কমেছে ১১৪ কোটি ৩০ লাখ টাকা।

টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে লাফার্জহোলসিম বাংলাদেশের শেয়ার। কোম্পানিটির ১৩৮ কোটি ৩৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা ওরিয়ন ফার্মার ১০২ কোটি ৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ৮৭ কোটি ৩৯ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে রয়েছে বেক্সিমকো।

এছাড়া ডিএসইতে লেনদেনের দিক থেকে শীর্ষ ১০ প্রতিষ্ঠানের তালিকায় রয়েছে- আইএফআইসি ব্যাংক, পাওয়ার গ্রিড, ব্রিটিশ আমেরিকান টোবাকো, ম্যাকসন স্পিনিং, এসিআই, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল ও জিপিএইচ ইস্পাত।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক মূল্য সূচক সিএএসপিআই কমেছে ২৭ পয়েন্ট। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ৭২ কোটি ৩২ লাখ টাকা। লেনদেনে অংশ নেওয়া ৩১০টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৯৯টির দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ১৯০টির এবং ৯১টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

এমএএস/বিএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]