২৩ স্থানে ‘পার্টনারশিপ’ কার্যক্রম এনআরবিসি ব্যাংকের

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:২৩ এএম, ২২ অক্টোবর ২০২১

প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর কাছে প্রযুক্তিভিত্তিক ব্যাংকিং সেবা পৌঁছে দিতে উত্তরাঞ্চলের ১৯ স্থানে এসকেএস ফাউন্ডেশনের সঙ্গে ক্ষুদ্রঋণভিত্তিক ‘পার্টনারশিপ’ ব্যাংকিং কার্যক্রম শুরু করেছে এনআরবিসি ব্যাংক।

বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) এ সেবা কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন ব্যাংকের চেয়ারম্যান এসএম পারভেজ তমাল। উপস্থিত ছিলেন এসকেএস ফাউন্ডেশনের প্রধান নির্বাহী রাসেল আহম্মেদ লিটন। এছাড়া দেশের আরও চার স্থানে ব্যাংকিং কার্যক্রম শুরু করেছে এনআরবিসি ব্যাংক।

পার্টনারশিপ ব্যাংকিং উপশাখাগুলো হলো পাবনার ফরিদপুর, সঁথিয়ার দক্ষিণ বোয়াইলমারী, বেড়ার সানালপাড়া, চক রামানন্দপুর ও আটঘরিয়া; চাঁপাইনবাবগঞ্জের রাজারামপুর, সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ার শ্রীখোলা, শাহজাদপুরের তালগাছি ও পাড়কোলা, বেলকুচির শেরনগর, চৌহালীর ব্রাহ্মণগ্রাম, রায়গঞ্জের চান্দাইকোনা, নিমগাছি ও হাটপাঙ্গাসী: বগুড়ার গোদারপাড়া, ঘোড়াধাপ ও সোনাতলা; গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জের রাজাবিরাট ও নওগাঁর হাঁপানিয়া।

এছাড়া শরীয়তপুর সদর, ঢাকার মিরপুরের কালশী, নেত্রকোণার দুর্গাপুর ও কিশোরগঞ্জের নিকলী উপশাখারও উদ্বোধন করা হয়। এদিন এসকেএস স্কুল অ্যান্ড কলেজে সিআরএম বুথ ও হাসপাতালে এটিএম বুথ বসানো হয়েছে।

এনআরবিসি ব্যাংকের চেয়ারম্যান এসএম পারভেজ তমাল বলেন, ব্যাংকিং সেবা থেকে বঞ্চিত সাধারণ মানুষের ব্যাংক হতেই এনআরবিসি ব্যাংক এই পার্টনারশিপ কার্যক্রম শুরু করেছে। এই উদ্যোগ গ্রামের মানুষের ভাগ্য উন্নয়ন, নতুন উদ্যোক্তা তৈরি ও কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে।

নতুন শাখাগুলোর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ব্যাংকের কর্মকর্তা, গণ্যমান্য ব্যক্তি, গ্রাহক ও ব্যবসায়ীরা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে ব্যাংকের সম্মৃদ্ধি কামনায় দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

ইএআর/বিএ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]