শ্রমিক কল্যাণ তহবিলে ৭ কোটি টাকা দিলো ৪ কোম্পানি

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:২৩ পিএম, ২৬ অক্টোবর ২০২১

বাংলাদেশ শ্রমিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন তহবিলে ছয় কোটি ৯৩ লাখ টাকা জমা দিয়েছে চার কোম্পানি। এগুলো হলো রবি আজিয়াটা লিমিটেড, মেঘনা পেট্রোলিয়াম, বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস ও নুভিস্তা ফার্মা।

মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) সচিবালয়ে কোম্পানিগুলোর প্রতিনিধিরা নিজ নিজ কোম্পানির পক্ষে শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ানের কাছে ছয় কোটি ৯৩ লাখ ৪১ হাজার ২৪১ টাকার চেক হস্তান্তর করেন।

রবি আজিয়াটা লিমিটেডের পক্ষে প্রধান মানবসম্পদ কর্মকর্তা ইমতিয়াজ খান দুই কোটি ৭৬ লাখ ৩৩ হাজার ৩৮০ টাকা, মেঘনা পেট্রোলিয়ামের জেনারেল ম্যানেজার আক্তার হোসেনের নেতৃত্বে তিন সদস্যের প্রতিনিধিদল দুই কোটি ১৬ লাখ ১৪ হাজার ১৩৭ টাকা, বেক্সিমকো ফার্মাসিটিক্যালস ও নুভিস্তা ফার্মার চিফ অপারেটিং অফিসার রাব্বুর রেজার নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধিদল এক কোটি ৯৫ লাখ ৫১ হাজার ৮২৬ টাকা ও পাঁচ লাখ ৪১ হাজার ৮৯৮ টাকার চেক হস্তান্তর করেন।

বাংলাদেশ শ্রম আইন অনুযায়ী কোনো কোম্পানির লাভের এক-দশমাংশ বাংলাদেশ শ্রমিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন তহবিলে জমা দেওয়ার বিধান রয়েছে। এ পর্যন্ত ২১৭টি দেশি-বিদেশি ও বহুজাতিক কোম্পানি ৬০০ কোটি টাকা এ তহবিলে জমা দিয়েছে। এ তহবিল থেকে প্রাতিষ্ঠানিক-অপ্রাতিষ্ঠানিক খাতে শ্রমিকদের মৃত্যুজনিত, দুরারোগ্য রোগের চিকিৎসা ও তাদের সন্তানদের উচ্চশিক্ষায় সহায়তা দেওয়া হয়।

চেক প্রদান অনুষ্ঠানে ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক বেগম জেবুন্নেছা করিম, কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের মহাপরিদর্শক মো. নাসির উদ্দিন আহমেদ, রবির চিফ করপোরেট অ্যাফেয়ার্স অফিসার মোহাম্মদ শাহেদুল আলম, পাবলিক অ্যাফেয়ার্সের ভাইস প্রেসিডেন্ট শরীফ শাহ জামাল রাজ, বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালসের পরিচালক (অ্যাকাউন্টস) জামাল আহমেদ চৌধুরী, হেড অব হিউম্যান রিসোর্স এম এ এরশাদ, সহকারী ম্যানেজার মো. আরিফ-উল-ইসলাম, পরিচালক ইন্ডাস্ট্রিয়াল অপারেশন খন্দকার মো. আল মামুন, মেঘনা পেট্রোলিয়াম লিমিটেডের হেড অ্যাসিস্ট্যান্ট ও সিবিএ সভাপতি সাদিকুর রহমান এবং হেড অ্যাসিস্ট্যান্ট ও সিবিএ সাধারণ সম্পাদক মো. হামিদুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

আইএইচআর/বিএ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]