বিমানের গুয়াংজু কার্যালয় উদ্বোধন

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৭:৪৮ পিএম, ১৭ জানুয়ারি ২০২২

যাত্রীবাহী ফ্লাইট চালুর উদ্যোগ হিসেবে চীনের গুয়াংজুতে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স সোমবার (১৭ জানুয়ারি) নিজস্ব কার্যালয়ের উদ্বোধন করেছে।

বিমানের গুয়াংজু কার্যালয়ের ঠিকানা: রুম-৫০৪ বি, অ্যাট্রিয়াম এরিয়া, গুয়াংডং ইন্টারন্যাশনাল বিল্ডিং, ৩৩৯ পূর্ব হুয়াংশি রোড, গুয়াংজু, ৫১০০৯৮, চীন।

নতুন কার্যালয়ের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে বক্তব্য দেন চীনে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মাহবুব উজ জামান, বিমানের করপোরেট পরিকল্পনা ও প্রশিক্ষণ পরিদপ্তরের পরিচালক এয়ার কমোডর ড. মো. মাহবুব জাহান খান (অব.), মহাব্যবস্থাপক (বিপণন) মোহাম্মদ সালাহউদ্দিন, চীনে বিমানের ব্যবসায়িক সহযোগী সুপার পাওয়ার লজিস্টিকসের প্রতিনিধি ফিলিপ উ, স্থানীয় বাংলাদেশি কমিউনিটির প্রতিনিধি মোহাম্মদ জাহিদ হোসেন, চীনে কর্মরত বিমানের কান্ট্রি ম্যানেজার মো. শাহনেওয়াজ মজুমদার ও স্টেশন ম্যানেজার মোহাম্মদ শামীম হাসান।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের উপ-মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) তাহেরা খন্দকার স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রদূত মাহবুব উজ জামান বলেন, প্রধানমন্ত্রী ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে উন্নত দেশে পরিণত করার লক্ষ্যে নিরলসভাবে কাজ করছেন। চীনের সঙ্গে বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ বাণিজ্যিক সম্পর্ক রয়েছে। বিমানের জন্য এটি অত্যন্ত লাভজনক গন্তব্য হবে। দেশটির সঙ্গে বিমানের যাত্রীবাহী ফ্লাইট চালুর জন্য দূতাবাসের পক্ষ থেকে সব ধরনের সহযোগিতা প্রদান করা হবে।

বিমানের পরিচালক এয়ার কমোডর ড. মো. মাহবুব জাহান খান (অব.) চীনে কার্গো ও চার্টার্ড ফ্লাইট পরিবহনের ক্ষেত্রে সার্বিক সহযোগিতা প্রদানের জন্য রাষ্ট্রদূতকে ধন্যবাদ জানান। তিনি জানান, শুধু গুয়াংজু নয়, ভবিষ্যতে দেশটির অন্যান্য গন্তব্যেও ফ্লাইট চালুর পরিকল্পনা রয়েছে।

বিমানের মহাব্যবস্থাপক (বিপণন) মোহাম্মদ সালাহউদ্দিন বলেন, খুব শিগগির এ রুটে বিমানের যাত্রীবাহী ফ্লাইট চালু হবে এবং যাত্রীদের ভোগান্তি কমে আসবে। টিকিটের মূল্যও হ্রাস পাবে।

চীনে বাংলাদেশি কমিউনিটির প্রতিনিধি মোহাম্মদ জাহিদ হোসেন বাংলাদেশ ও চীনের মধ্যে যাত্রীবাহী ফ্লাইট চালুর উদ্যোগকে স্বাগত জানান।

তিনি বলেন, এর ফলে চীনে বসবাসকারী বাংলাদেশিরা উপকৃত হবেন। তারা সহজেই দেশে যাতায়াত করতে পারবেন।

এছাড়াও সুপার পাওয়ার লজিস্টিকসের প্রতিনিধি ফিলিপ উ তাদের দিক থেকে সার্বিক সহযোগিতা প্রদানের বিষয়টি বিমান কর্তৃপক্ষকে আশ্বস্ত করেন।

এমইউ/এমএইচআর/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]