বিনিয়োগকারীদের পছন্দের শীর্ষে ফার্মা এইড

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:২৬ পিএম, ২১ জানুয়ারি ২০২২
ফাইল ছবি

বছরের প্রথম দুই সপ্তাহের মতো গেলেও সপ্তাহও ঊর্ধ্বমুখীর মাধ্যমে পার করেছে দেশের শেয়ারবাজার। লেনদেন বাড়ার পাশাপাশি দাম বাড়ার তালিকায় নাম লিখিয়েছে বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের। সপ্তাহজুড়ে প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) দাম বাড়ার তালিকায় নাম লিখিয়েছে ২২৪টি প্রতিষ্ঠান। বিপরীতে দাম কমেছে ১৩৯টির।

বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বাড়লেও গেল সপ্তাহজুড়ে দাম বাড়ার ক্ষেত্রে সব থেকে বেশি দাপট দেখিয়েছে ওষুধ ও রসায়ন খানের কোম্পানি ফার্মা এইড। গত সপ্তাহে বিনিয়োগকারীদের কাছে পছন্দের শীর্ষে ছিল কোম্পানিটির শেয়ার। ফলে প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে দাম বাড়ার শীর্ষ স্থানটি দখল করেছে এই প্রতিষ্ঠানটি।

গেল সপ্তাহজুড়ে কোম্পানিটির শেয়ার দাম বেড়েছে ২৬ দশমিক ৩৬ শতাংশ। টাকার অঙ্কে বেড়েছে ১৬৫ টাকা। সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস শেষে কোম্পানিটির শেয়ারের দাম দাঁড়িয়েছে ৭৯১ টাকা, যা আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে ছিল ৬২৬ টাকা।

শেয়ারের এমন দাম বাড়া কোম্পানিটি সর্বশেষ গত নভেম্বরে ২০২১ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত বছরের জন্য বিনিয়োগকারীদের ৫০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেওয়ার সিদ্ধান্ত জানায়। তার আগে ২০২০, ২০১৯ এবং ২০১৮ সালেও কোম্পানিটি বিনিয়োগকারীদের ৫০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেয়।

আর সর্বশেষ প্রকাশিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী, কোম্পানিট ২০২১ সালের জুলাই থেকে সেপ্টেম্বর তিন মাসের ব্যবসায় শেয়ারপ্রতি মুনাফা করেছে ৫ টাকা ১৫ পয়সা। আগের বছরের একই সময়ে এই মুনাফার পরিমাণ ছিল ৪ টাকা ১ পয়সা। সে হিসেবে আগের বছরের তুলনায় চলমান হিসাব বছরের প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি মুনাফা বেড়েছে ১ টাকা ১৪ পয়সা।

মাত্র ৩ কোটি ১২ লাখ টাকা পরিশোধিত মূলধনের এই কোম্পানিটির মোট শেয়ারের সংখ্যা ৩১ লাখ ২০ হাজার। এই শেয়ারের মধ্যে ৬৫ দশমিক ৫৫ শতাংশই আছে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে। উদ্যোক্তা ও পরিচালকদের কাছে আছে ২৪ দশমিক ২২ শতাংশ। বাকি ১০ দশমিক ২৩ শতাংশ আছে প্রাতিষ্ঠানিক বিনয়োগকারীদের কাছে।

এদিকে শেয়ার দাম বাড়ায় বিনিয়োগকারীদের একটি অংশ কোম্পানিটির শেয়ার বিক্রি করে দিয়েছেন। ফলে সপ্তাহজুড়ে কোম্পানিটির শেয়ার লেনদেন হয়েছে ৭১ কোটি ৩৮ লাখ ৮৭ হাজার টাকা। আর প্রতি কার্যদিবসে গড়ে লেনদেন হয়েছে ১৪ কোটি ২৭ লাখ ৭৭ হাজার টাকা।

গেল সপ্তাহে দাম বাড়ার শীর্ষ তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ফু-ওয়াং ফুড। গেল সপ্তাহজুড়ে এই কোম্পানিটির শেয়ারের দাম বেড়েছে ২৩ দশমিক ৮৬ শতাংশ। এর পরের স্থানটিতে রয়েছে গ্লোবাল হেবি কেমিক্যাল। সপ্তাহজুড়ে এ কোম্পানিটির শেয়ার দাম বেড়েছে ২৩ দশমিক ৬২ শতাংশ।

এছাড়া দাম বাড়ার শীর্ষ ১০ প্রতিষ্ঠানের তালিকায় থাকা সমরিতা হাসপাতালের ২২ দশমিক ২৩ শতাংশ, দেশ গার্মেন্টেসের ২১ দশমিক ৮১ শতাংশ, পেপার প্রসেসিংয়ের ২০ দশমিক ৩৬ শতাংশ, প্রাইম ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্সের ১৯ দশমিক ৭৯ শতাংশ, ইয়াকিন পলিমারের ১৭ দশমিক ২১ শতাংশ, মুন্নু ফেব্রিক্সের ১৬ দশমিক ৫১ শতাংশ এবং ওরিয়ন ইনফিউশনের ১৬ দশমিক শূন্য ৮ শতাংশ দাম বেড়েছে।

এমএএস/এমআরএম/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]