বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ হারানোর শীর্ষে তাল্লু স্পিনিং

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১০:৪৪ এএম, ২২ জানুয়ারি ২০২২

গত সপ্তাহে বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ হারানোর শীর্ষ স্থানটি দখল করেছে তাল্লু স্পিনিং মিলস লিমিটেড। বিনিয়োগকারীরা কোম্পানিটির শেয়ার কিনতে আগ্রহী না হওয়ায় সপ্তাহজুড়েই দাম কমেছে। এতে গত সপ্তাহে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) দাম কমার শীর্ষ স্থানটি দখল করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

গেল সপ্তাহজুড়ে কোম্পানিটির শেয়ার দাম কমেছে ১৫ দশমিক ৭৫ শতাংশ। টাকার অঙ্কে প্রতিটি শেয়ারের দাম কমেছে ২ টাকা। সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস শেষে কোম্পানিটির শেয়ার দাম দাঁড়িয়েছে ১০ টাকা ৭০ পয়সা, যা আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস শেষে ছিল ১২ টাকা ৭০ পয়সা।

অবশ্য এই দাম কমার আগে অর্ধমাস ধরে কোম্পানিটির শেয়ার দাম বাড়ে। কোম্পানিটি এবার শেয়ারহোল্ডারদের লভ্যাংশ দেবে এমন গুজবের ভিত্তিতে গত বছরের শেষ সপ্তাহ থেকে কোম্পানিটির শেয়ার দাম বাড়ার প্রবণতা দেখা যায়। গত বছরের ২৭ ডিসেম্বর কোম্পানিটির শেয়ারের দাম ছিল ৯ টাকা ১০ পয়সা। সেখান থেকে বেড়ে প্রতিটি শেয়ারের দাম ১৪ টাকা ৩০ পয়সায় ওঠে।

তবে গেল সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস ডিএসইর মাধ্যমে ঘোষণা আসে কোম্পানিটি ২০১৯, ২০২০ এবং ২০২১ সালের (৩০ জুন সমাপ্ত বছরের) জন্য শেয়ারহোল্ডারদের কোনো ধরনের লভ্যাংশ দেবে না। এতে একদিনে কোম্পানিটির শেয়ার দাম কমে ৩ টাকা ৬০ পয়সা বা ২৫ দশমিক ১৭ শতাংশ।

শেয়ার দামে বড় পতন হওয়ায় বিনিয়োগকারীদের একটি অংশ কোম্পানিটির শেয়ার কিনতে রাজি হননি। এতে গেল সপ্তাহজুড়ে কোম্পানিটির শেয়ার লেনদেন হয়েছে ১৩ কোটি ৩৯ লাখ ৮২ হাজার টাকা। এতে প্রতি কার্যদিবসে গড়ে লেনদেন হয়েছে ২ কোটি ৬৭ লাখ ৯৬ হাজার টাকা।

তাল্লু স্পিনিংয়ের পরেই গত সপ্তাহে দাম কমার তালিকায় ছিল ইস্টার্ন লুব্রিকেন্ট। সপ্তাহজুড়ে এই কোম্পানিটির শেয়ার দাম কমেছে ১২ দশমিক ২২ শতাংশ। ১১ দশমিক ৫৮ শতাংশ দাম কামার মাধ্যমে পরের স্থানে রয়েছে লাভেলো আইসক্রিম।

এছাড়া গত সপ্তাহে দাম কমার শীর্ষ ১০ প্রতিষ্ঠানের তালিকায় থাকা তিতাস গ্যাসের ১০ দশমিক ৪৮ শতাংশ, বেক্সিমকো গ্রিন সুকুকের ১০ দশমিক ৪০ শতাংশ, ইস্টার্ন ক্যাবলসের ৯ দশমিক ৮২ শতাংশ, বসুন্ধরা পেপারের ৯ দশমিক ৩১ শতাংশ, পাওয়ার গ্রিডের ৬ দশমিক ৫০ শতংশ, ন্যাশনাল টিউবসের ৫ দশমিক ৮৮ শতাংশ এবং ইফাদ অটোসের ৫ দশমিক ৪৬ শতাংশ দাম কমেছে।

এমএএস/কেএসআর/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]