পছন্দের শীর্ষে এসইএমএল লেকচার ইক্যুইটি ম্যানেজমেন্ট ফান্ড

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:৩২ পিএম, ২৭ মে ২০২২

গত সপ্তাহজুড়ে দেশের শেয়ারবাজার কিছুটা দরপতনের মধ্য দিয়ে গেলেও দাম বাড়ার ক্ষেত্রে দাপট দেখিয়েছে এসইএমএল লেকচার ইক্যুইটি ম্যানেজমেন্ট ফান্ড। এই মিউচ্যুয়াল ফান্ডটি গত সপ্তাহজুড়েই বিনিয়োগকারীদের কাছে পছন্দের শীর্ষে ছিল। ফলে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) দাম বাড়ার শীর্ষ স্থানটি দখল করেছে এই ফান্ডটি।

গত সপ্তাহে লেনদেন হওয়া পাঁচ কার্যদিবসের মধ্যে চার কার্যদিবসেই মিউচ্যুয়াল ফান্ডটির দাম বেড়েছে। এতে সপ্তাহজুড়ে মিউচ্যুয়াল ফান্ডটির দাম বেড়েছে ১৬ দশমিক ৮৫ শতাংশ। টাকার অঙ্কে বেড়েছে ১ টাকা ৫০ পয়সা। গেল সপ্তাহে মিউচ্যুয়াল ফান্ডটির দাম ৮ টাকা ৯০ পয়সা থেকে বেড়ে ১০ টাকা ৪০ পয়সায় উঠেছে।

এমন দাম বাড়া মিউচ্যুয়াল ফান্ডটি গত ২৮ এপ্রিল চলমান হিসাব বছরের প্রথম নয় মাসের (২০২১ সালের জুলাই থেকে চলতি বছরের মার্চ পর্যন্ত) আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করে। ওই প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, নয় মাসের ব্যবসায় ইউনিটপ্রতি মুনাফা হয়েছে ৬৮ পয়সা, যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ২ টাকা ১৪ পয়সা। অর্থাৎ গত বছরের তুলনায় ফান্ডটির মুনাফা কমেছে।

অন্যদিকে ফান্ডটির লভ্যাংশ তথ্য পর্যালোচনায় দেখা যায়, সর্বশেষ ২০২১ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাব বছরে বিনিয়োগকারীদের ১৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেয় এই মিউচ্যুয়াল ফান্ডটি। তার আগে ২০১৯ এবং ২০১৮ সালে ৭ শতাংশ করে নগদ লভ্যাংশ দেয়। আর ২০১৭ সালে ১০ শতাংশ এবং ২০১৬ সালে আড়াই শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেয় ফান্ডটি।

এদিকে দাম বাড়ার পরও বিনিয়োগকারীদের একটি অংশ ফান্ডটি বিক্রি করতে চাননি। ফলে সপ্তাহজুড়ে মিউচ্যুয়াল ফান্ডটির লেনদেন হয়েছে ২ কোটি ৪৬ লাখ ২৬ হাজার টাকা। আর প্রতি কার্যদিবসে গড়ে লেনদেন হয়েছে ৪৯ লাখ ২৫ হাজার টাকা।

গেল সপ্তাহে দাম বাড়ার শীর্ষ তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে লুব-রেফ বাংলাদেশ। এই প্রতিষ্ঠানটির শেয়ার দাম গেল সপ্তাহজুড়ে বেড়েছে ১৩ দশমিক ৫২ শতাংশ। এর পরের স্থানটিতে রয়েছে জিএসপি ফাইন্যান্স। সপ্তাহজুড়ে এ কোম্পানিটির শেয়ার দাম বেড়েছে ১৩ দশমিক ৩৩ শতাংশ।

এছাড়া দাম বাড়ার শীর্ষ ১০ প্রতিষ্ঠানের তালিকায় থাকা প্যারামাউন্ট টেক্সটাইলের ১২ দশমিক ৬৬ শতাংশ, রেনউইক যজ্ঞেশ্বরের ১২ দশমিক ২৪ শতাংশ, ভিএফএস থ্রেড ডাইংয়ের ১১ দশমিক ৪২ শতাংশ, কাশেম ইন্ডাস্ট্রিজের ৮ দশমিক ৫৯ শতাংশ, ন্যাশনাল ফিড মিলের ৮ দশমিক ২৮ শতাংশ, সিলভা ফার্মাসিউটিক্যালসের ৭ দশমিক ৫২ শতাংশ এবং মাইডাস ফাইন্যান্সের ৬ দশমিক ২৫ শতাংশ দাম বেড়েছে।

এমএএস/এমএইচআর/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]