আর্থিক প্রতিষ্ঠানে অভিযোগের অগ্রগতি জানাতে হবে গ্রাহককে

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:৪৬ পিএম, ২৭ জুন ২০২২
ফাইল ছবি

এখন থেকে গ্রাহকের আনীত অভিযোগ নিষ্পত্তিতে দীর্ঘ সময়ের প্রয়োজন হলে অভিযোগের অগ্রগতি ও ফলাফল বিষয়ে অভিযোগকারীকে জানাতে হবে বলে নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

সোমবার (২৭ জুন) বাংলাদেশ ব্যাংকের আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও বাজার বিভাগ এ সংক্রান্ত নির্দেশনা সব আর্থিক প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে পাঠিয়েছে। আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইন, ১৯৯৩ এর ১৮ (ছ) ধারায় দেওয়া ক্ষমতাবলে এ নির্দেশনা জারি করা হয়েছে, যা অবিলম্বে কার্যকর করতে হবে বলে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনায় বলা হয়েছে, আর্থিক প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহীর সরাসরি তত্ত্বাবধানে প্রধান কার্যালয়ে, আঞ্চলিক কার্যালয়ে ও শাখা পর্যায়ে অভিযোগ সেল গঠন করতে হবে। বাংলাদেশ ব্যাংকের ‘গ্রাহক সেবা ও অভিযোগ ব্যবস্থাপনা নীতিমালা’ অনুযায়ী গ্রাহকের আবেদন-অভিযোগ নিষ্পত্তি-প্রতিবেদন তৈরির বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে।

আমানতকারী ও ঋণগ্রহীতাসহ সব ধরনের গ্রাহকের অভিযোগ-আবেদনপত্র আর্থিক প্রতিষ্ঠানের প্রধান কার্যালয়সহ যে দপ্তরেই দাখিল করা হোক না কেন তা প্রাপ্তিস্বীকার দেওয়ার মাধ্যমে নিতে হবে।

গ্রাহকের কাছ হতে প্রাপ্ত অভিযোগগুলো এফআইসিএসডি সার্কুলার নম্বর-০১, ১৩ জুলাই, ২০১৪ এর মাধ্যমে ঘোষিত ‘গ্রাহক সেবা ও অভিযোগ ব্যবস্থাপনা নীতিমালার’ ৩.০৬ নম্বর অনুচ্ছেদে নির্দেশিত সময়ের মধ্যে নিষ্পত্তি করতে হবে। অভিযোগ নিষ্পত্তিতে দীর্ঘ সময়ের প্রয়োজন হলে অভিযোগের অগ্রগতি ও ফলাফল সম্পর্কে অভিযোগকারীকে নিয়মিত তথ্য দিতে হবে।

প্রধান কার্যালয়, আঞ্চলিক কার্যালয় ও শাখা পর্যায়ে গ্রাহক সেবা ও অভিযোগ ব্যবস্থাপনার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তার নাম সুস্পষ্টভাবে প্রকাশ করতে হবে। আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে মাসিক/ত্রৈমাসিক ভিত্তিতে গ্রাহকের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে নেওয়া ব্যবস্থাদির বিবরণী বাংলাদেশ ব্যাংক ওয়েব পোর্টালের মাধ্যমে দাখিলের বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে। এছাড়া গ্রাহক সেবার মানোন্নয়নে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখতে হবে।

ইএআর/এসএএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - jago[email protected]