‘ব্যাংকগুলোর টালবাহানায় ক্ষুদ্র উদ্যোক্তারা প্রণোদনা থেকে বঞ্চিত’

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:৫৯ এএম, ২৮ জুন ২০২২

করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত উদ্যোক্তাদের জন্য প্রধানমন্ত্রী প্রণোদনার ব্যবস্থা করলেও তা ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তারা পান না বলে মন্তব্য করেছেন শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন।

তিনি বলেছেন, বড় বড় কোম্পানিগুলো বেশিরভাগ প্রণোদনা পেয়ে থাকে। কারণ ব্যাংকগুলো নানা রকম টালবাহানা করে, যার জন্য ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের বঞ্চিত হতে হয়।

সোমবার (২৭ জুন) সন্ধ্যায় রাজধানী পর্যটন ভবনে আন্তর্জাতিক এমএসএমই দিবস ২০২২ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বঙ্গভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

শিল্পমন্ত্রী বলেন, উদ্যোক্তাদের জন্য আলাদা ব্যাংকের প্রয়োজন রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী অনেকগুলো ব্যাংক দিয়েছেন। প্রবাসীদের জন্য ব্যাংক দিয়েছেন, বেসিক ব্যাংক দিয়েছেন এক সময়ে। আগামীতে এসএমই একটা ব্যাংকের চেষ্টা করবো। যেন এই খাতে সাহায্য হয়।

নূরুল মজিদ বলেন, ব্যাংকে সুদ লেনদেন হয়। ব্যাংকগুলো বড় বড় পার্টি ও ঋণখেলাপিদের ঋণ দেয়। ক্ষুদ্র উদ্যোক্তারা ব্যাংকে গেলে তাদের কাছ থেকে ট্রেড লাইসেন্সসহ নানা বিষয় নিয়ে প্রশ্ন করা হয়। যা ক্ষুদ্র উদ্যোক্তারা পরিপূর্ণ করতে পারে না। ফলে ব্যাংক থেকেই তারা ফিরে আসেন।

মন্ত্রী আরও বলেন, নিজস্ব অর্থায়নে আমরা পদ্মা সেতু করেছি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পদ্মা সেতু উদ্বোধন করেছেন। এত কম সময়ে পদ্মা সেতুর মতো এত বড় প্রকল্পের সম্পন্ন করা আমাদের সক্ষমতার পরিচয়। সারাবিশ্বে আমরা নন্দিত। এতে দক্ষিণের ২১ জেলার সঙ্গে অর্থনৈতিক বাড়বে ও শিল্পায়ন হবে।

স্বাগত বক্তব্যে এসএমই ফাউন্ডেশনের চেয়ারপারসন অধ্যাপক ড. মো. মাসুদুর রহমান বলেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে সারাদেশের এসএমই উদ্যোক্তাদের জন্য সহজ শর্তে ঋণ, দক্ষতা ও সক্ষমতা বাড়ানো প্রয়োজন। একই সঙ্গে আমদানি-রপ্তানি ব্যবসায় সৃষ্ট ঝুঁকি ও কাঁচামালের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির কারণে বিকল্প ব্যবস্থার সন্ধান ও সহায়তা প্রদান জরুরি।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার বলেন, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প খাত বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের মূল চালিকাশক্তি। রপ্তানি প্রবৃদ্ধি, পণ্য বৈচিত্র্যকরণ, কর্মসংস্থান সৃষ্টি, দারিদ্র্য বিমোচনসহ সার্বিক আর্থসামাজিক অগ্রগতিতে এই খাতের গুরুত্বপূর্ণ অবদান রয়েছে।

অনুষ্ঠানে এসএমই ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. মো. মফিজুর রহমানসহ দেশের ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তা, চেম্বার ও অ্যাসোসিয়েশন প্রতিনিধি এবং সরকারি-বেসরকারি সংস্থার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

এসএম/আরএডি/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]