প্রতিদিন দাম বাড়ার সর্বোচ্চ সীমায় মেঘনা ইন্স্যুরেন্স

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১০:৪৭ এএম, ০২ জুলাই ২০২২

টানা দরপতনের পর গেল সপ্তাহে দেশের শেয়ারবাজারে কিছুটা ঊর্ধ্বমুখীতার দেখা মিলেছে। ঊর্ধ্বমুখী এই বাজারে গত সপ্তাহে দাম বাড়ার ক্ষেত্রে দাপট দেখিয়েছে নতুন তালিকাভুক্ত কোম্পানি মেঘনা ইন্স্যুরেন্স। এই কোম্পানিটির শেয়ার দাম গত সপ্তাহের প্রতি কার্যদিবসেই দাম বাড়ার সর্বোচ্চ সীমা স্পর্শ করেছে। ফলে প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) দাম বাড়ার শীর্ষ স্থানটি দখল করেছে এই সাধারণ বিমা কোম্পানিটি।

গেল সপ্তাহে লেনদেন হওয়া পাঁচ কার্যদিবসে মেঘনা ইন্স্যুরেন্সের শেয়ার দাম বেড়েছে ৫৯ দশমিক ৫৫ শতাংশ। টাকার অঙ্কে বেড়েছে ১৮ টাকা ৪০ পয়সা। গেল সপ্তাহে কোম্পানিটির শেয়ার দাম ৩০ টাকা ৯০ পয়সা থেকে বেড়ে ৪৯ টাকা ৩০ পয়সায় উঠেছে।

শেয়ারের এমন দাম বাড়া কোম্পানিটির শেয়ার গত ৮ জুন থেকে শেয়ারবাজারে লেনদেন শুরু হয়। এখনো পর্যন্ত লেনদেন হওয়া ১৭ কার্যদিবসেই কোম্পানিটির শেয়ার দাম বাড়ার সর্বোচ্চ সীমা স্পর্শ করেছে।

চলতি বছরের মার্চে পুঁজিবাজারের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) প্রতিষ্ঠানটিকে প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে শেয়ারবাজার থেকে ১৬ কোটি টাকা উত্তোলনের অনুমোদন দেয়।

নিয়ন্ত্রক সংস্থার অনুমোদন পেয়ে কোম্পানিটি ১০ টাকা করে ১ কোটি ৬০ লাখ সাধারণ শেয়ার আইপিওতে বিক্রি করেছে। আইপিওর মাধ্যমে উত্তোলন করা অর্থ দিয়ে কোম্পানিটি সরকারি সিকিউরিটিজ ক্রয়, পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ, স্থায়ী আমানতে বিনিয়োগ ও আইপিও খরচ খাতে ব্যয় করবে।

এদিকে দাম বাড়ার পরও বিনিয়োগকারীরা কোম্পানিটির শেয়ার বিক্রি করতে চাননি। ফলে সপ্তাহজুড়ে লেনদেন হয়েছে ১ কোটি ৫৬ লাখ ৫৩ হাজার টাকা। আর প্রতি কার্যদিবসে গড়ে লেনদেন হয়েছে ৩ লাখ ৩৩ হাজার টাকা।

গেল সপ্তাহে দাম বাড়ার শীর্ষ তালিকায় দ্বিতীয় স্থান দখল করে ইন্ট্রাকো রিফুয়েলিং স্টেশন। এই প্রতিষ্ঠানটির শেয়ার দাম গেল সপ্তাহজুড়ে বেড়েছে ২২ দশমিক ৫৫ শতাংশ। এর পরের স্থানটিতে রয়েছে প্রাইম টেক্সটাইল স্পিনিং মিলস। সপ্তাহজুড়ে এ কোম্পানিটির শেয়ার দাম বেড়েছে ১৯ দশমিক ৭৯ শতাংশ।

এছাড়া দাম বাড়ার শীর্ষ ১০ প্রতিষ্ঠানের তালিকায় থাকা সোনারগাঁও টেক্সটাইলের ১৭ দশমিক ৫৬ শতাংশ, শ্যামপুর সুগার মিলের ১৬ দশমিক ৬৩ শতাংশ, হামিদ ফেব্রিক্সের ১৫ দশমিক শূন্য ৫ শতাংশ, ইমাম বাটনের ১৪ দশমিক ৬১ শতাংশ, এমবি ফার্মার ১৩ দশমিক ৭৩ শতাংশ, নাভানা সিএনজির ১২ দশমিক ৭৭ শতাংশ এবং ক্রাউন সিমেন্টের ১২ দশমিক শূন্য ৫ শতাংশ দাম বেড়েছে।

এমএএস/জেএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]