জ্বালানি সম্পৃক্ত সবাইকে নিয়ে বসবেন প্রধানমন্ত্রী: অর্থমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:৩৫ পিএম, ১০ আগস্ট ২০২২
ফাইল ছবি

জ্বালানি মন্ত্রণালয় ও এর সঙ্গে সম্পৃক্ত সবাইকে নিয়ে প্রধানমন্ত্রী বসবেন বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

বুধবার (১০ আগস্ট) বিকেলে সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধির বিষয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘এটা নিয়ে কাজ করা হয়েছে। কাজ করেই দাম বাড়ানো হয়েছে। দাম কেন বাড়লো, তা সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় জানিয়েছে। এর বাইরে আমি কিছু বলবো না। যারা এটার সঙ্গে সম্পৃক্ত প্রধানমন্ত্রী তাদের সবাইকে নিয়েই বসবেন।’

জ্বালানির প্রভাবে মূল্যস্ফীতি বাড়বে কি না, এমন প্রশ্নে মুস্তফা কামাল বলেন, ‘তেলের দাম বাড়লে সবকিছুর দামই বাড়ে, এটা স্বাভাবিক। সরকার বিষয়টি নিয়ে কাজ করছে।’

মূল্যবৃদ্ধির প্রভাব মূল্যায়ন করা হবে কি না, প্রশ্নে মুস্তফা কামাল বলেন, ‘অবশ্যই করা হবে। বার বার বলে আসছি সম্মিলিত প্রাইস লেভেল..। সেখানে (বিশ্ববাজারে) দাম বাড়লে এখানেও বাড়বে। সেখানে কমলে এখানেও কমবে।’

বাংলাদেশ ব্যাংক ছয় ব্যাংকের ট্রেজারি প্রধানকে অপসারণের নির্দেশ দিয়েছে, এর প্রভাব সম্পর্কে জানতে চাইলে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘এখানে যেভাবে সাহায্য করা দরকার, তা যদি না করা হয়, তাহলে তো সমস্যা। আপনার ব্যাংকে আপনি কত টাকা রাখতে পারেন, ডলার কত রাখবেন, ক্যাশ টাকা কত রাখবেন, সেটির বিষয় আছে। এর বাইরে যদি রাখেন, তাহলে মনে হবে অন্য কিছু করছেন। আমি বিষয়টি সঠিকভাবে জানি না।’

ডলারের দাম বাড়ছেই, এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘পৃথিবীতে এমন কোনো দেশ পাওয়া যাবে না, যেখানে ডলারের দাম বাড়েনি। ডলারের দাম সব জায়গায় বেড়েছে। সবাই এটা নিয়ে ভুগছেন। যারা যুদ্ধ করছেন, তারাও ভুগছেন। যারা যুদ্ধ বাড়াচ্ছেন, তারাও এর বাইরে নন।’

মানুষ দুঃসময়ে পড়ে গেছে উল্লেখ করে অর্থমন্ত্রী আরও বলেন, ‘গরিব মানুষের জন্য সরকার কাজ করছে। সরকার সবার জন্যই। কিন্তু গরিব মানুষের জন্য প্রণোদনাসহ বেশ কিছু উদ্যোগ রয়েছে। জনগণকে সহযোগিতা করা ও তাদের ভালোভাবে রাখা সরকারের দায়িত্ব। সেই কাজটি সরকার করে যাচ্ছে এবং করে যাবে। দুঃসময় কেটে যাবে বলে আশা করি।’

আইএইচআর/এএএইচ/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।