দক্ষিণাঞ্চলে দুগ্ধ খাতের উন্নয়নে প্রাণ ডেইরি-এসিডিআই ভোকার চুক্তি

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:৪৩ পিএম, ১১ আগস্ট ২০২২

দেশের দক্ষিণাঞ্চলে দুগ্ধ খাতের উন্নয়নে যৌথভাবে কাজ করতে একটি চুক্তি সই করেছে প্রাণ ডেইরি লিমিটেড ও যুক্তরাষ্ট্র্রভিত্তিক আন্তর্জাতিক সংস্থা এসিডিআই/ভোকা। মার্কিন দাতাসংস্থা ইউএসএইডের অর্থায়নে এসিডিআই/ভোকা পরিচালিত ‘বাংলাদেশ লাইভস্টক অ্যান্ড নিউট্রিশন অ্যাক্টিভিটি’ প্রকল্পের আওতায় দক্ষিণাঞ্চলে দুগ্ধ খাতের উন্নয়নে কাজ করতে এ চুক্তি সই হয়।

বৃহস্পতিবার (১১ আগস্ট) বিকেলে রাজধানীর বাড্ডায় প্রাণ ডেইরির প্রধান কার্যালয়ে চুক্তিতে সই করেন প্রাণ গ্রুপ-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইলিয়াছ মৃধা ও প্রকল্পের চিফ অব পার্টি মোহাম্মদ নুরুল আমিন সিদ্দিকী।

jagonews24

এ চুক্তির আওতায় প্রাণ ডেইরি দক্ষিণাঞ্চলে নিরাপদ দুধের উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে খামার ব্যবস্থাপনার ওপর খামারিদের প্রশিক্ষণ, দুধ সংগ্রহ ও বিপণনসহ দুগ্ধ খাতের সার্বিক উন্নয়নে কাজ করবে। প্রকল্পের আওতায় যশোর, খুলনা, কুষ্টিয়া, নড়াইল, সাতক্ষীরা, ফরিদপুর, বরিশাল, পিরোজপুর, ঝালকাঠি, কক্সবাজারসহ দক্ষিণাঞ্চলের কয়েকটি জেলায় এ কার্যক্রম পরিচালিত হবে। এতে অর্থায়নসহ নানাভাবে সহায়তা করবে এসিডিআই/ভোকা।

এ উদ্যোগের ফলে দক্ষিণাঞ্চলে খামারিরা সঠিকভাবে দুগ্ধ খামার পরিচালনার মাধ্যমে লাভবান হবেন। বিশেষ করে যুবক ও নারীরা প্রশিক্ষণ গ্রহণের মাধ্যমে গাভি পালনে উদ্বুদ্ধ হবেন এবং খামারিরা সহজে প্রাণ ডেইরির কাছে দুধ বিপণন করতে সক্ষম হবেন। এছাড়া এসব অঞ্চলে নতুন করে বিভিন্ন জায়গায় দুগ্ধ সংগ্রহ কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা ও বিদ্যমান দুগ্ধ সংগ্রহ কেন্দ্রে নিজেদের কার্যক্রম আরও জোরদার করবে প্রাণ ডেইরি।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন প্রাণ ডেইরির ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (অপারেশন) মো. মাকসুদুর রহমান, ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (ডেইরি এক্সটেনশন সার্ভিস) শরিফ উদ্দীন তরফদার, অ্যাসিস্ট্যান্ট জেনারেল ম্যানেজার (মার্কেটিং) মো. রাকিবুল ইসলাম লেনিন, ডেপুটি ম্যানেজার (ডেইরি এক্সটেনশন) মো. জিহাদুল কবির এবং এসিডিআই/ভোকার পক্ষে প্রাইভেট সেক্টর এনগেজমেন্ট স্পেশালিস্ট মো. সালিম হোসেন ও মো. মায়েজ কবির।

বিএ/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।