বিনিয়োগকারীদের পছন্দের শীর্ষে এসইএমএল এফবিএলএসএল গ্রোথ ফান্ড

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:৫১ পিএম, ১২ আগস্ট ২০২২
ফাইল ছবি

গেলো সপ্তাহজুড়ে দেশের শেয়ারবাজারে বড় দরপতন হয়েছে। এ পতনের বাজারে সপ্তাহজুড়েই দাম বাড়ার ক্ষেত্রে দাপট দেখিয়েছে এসইএমএল এফবিএলএসএল গ্রোথ ফান্ড।

মিউচ্যুয়াল ফান্ডটি এক শ্রেণির বিনিয়োগকারীদের পছন্দের শীর্ষে থাকায় সপ্তাহজুড়েই দাম বেড়েছে। ফলে প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) দাম বাড়ার শীর্ষ স্থানটি দখল করেছে এ ফান্ডটি।

গেলো সপ্তাহজুড়ে এসইএমএল এফবিএলএসএল গ্রোথ ফান্ড দাম বেড়েছে ১৫ দশমিক ২৯ শতাংশ। টাকার অঙ্কে বেড়েছে এক টাকা ৩০ পয়সা। সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস শেষে ফান্ডটির প্রতিটি ইউনিটের দাম দাঁড়িয়েছে ৯ টাকা ৮০ পয়সা, যা আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে ছিল আট টাকা ৫০ পয়সা।

এমন দাম বাড়া ফান্ডটি সর্বশেষ চলতি বছরের ৩০ জুন সমাপ্ত বছরের জন্য ১৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। এ সংক্রান্ত রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ৪ সেপ্টেম্বর।

এর আগে ২০২১ সালে বিনিয়োগকারীদের ১৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেয় ফান্ডটি। তার আগে ২০২০ সালে আড়াই শতাংশ এবং ২০১৯ সালে ৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেয় ফান্ডটি।

এদিকে দাম বাড়লেও বিনিয়োগকারীদের একটি অংশ তাদের কাছে থাকা ফান্ডটির ইউনিট বিক্রি করতে চাননি। ফলে সপ্তাহজুড়ে মিউচ্যুয়াল ফান্ডটির লেনদেন হয়েছে চার কোটি ৩৩ লাখ ৩০ হাজার টাকা। আর প্রতি কার্যদিবসে গড়ে লেনদেন হয়েছে এক কোটি আট লাখ ৩২ হাজার টাকা।

গেলো সপ্তাহে দাম বাড়ার শীর্ষ তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে থাকা সি পাল বিচ রিসোর্টের শেয়ার দাম বেড়েছে ১১ দশমিক ৬২ শতাংশ। ১১ দশমিক ১২ শতাংশ দাম বাড়ার মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে রয়েছে জুট স্পিনার্স।

এছাড়া দাম বাড়ার শীর্ষ দশে স্থান করে নেওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ইনট্রাকো রিফুয়েলিং স্টেশনের ৯ দশমিক ৮০ শতাংশ, আরডি ফুডের ৮ দশমিক ৪২ শতাংশ, কপারটেকের ৭ দশমিক ৬৯ শতাংশ, সোনালী পেপারের ৬ দশমিক ৯১ শতাংশ, সোনারগাঁও টেক্সটাইলের ৫ দশমিক ৮৬ শতাংশ, ইবিএল এনআরবি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ৫ দশমিক ৮০ শতাংশ এবং সিনোবাংলা ইন্ডাস্ট্রিজের ৫ দশমিক ১৪ শতাংশ দাম বেড়েছে।

এমএএস/এএএইচ/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।