১০ কোম্পানির দখলে লেনদেনের অর্ধেক

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:৫৯ পিএম, ১২ সেপ্টেম্বর ২০২২
ফাইল ছবি

সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবস সোমবার প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) যে লেনদেন হয়েছে, তার অর্ধেকই ১০ কোম্পানির। আর লেনদেনের শীর্ষে থাকা ২০ কোম্পানির দখলে মোট লেনদেনের ৬১ শতাংশ।

লেনদেনের সিংহভাগ গুটিকয়েক কোম্পানির দখলে থাকা ভালো লক্ষণ নয় বলে অভিমত বাজার সংশ্লিষ্টদের। তাদের অভিমত, বাজারে কিছু কোম্পানির শেয়ার যেভাবে লেনদেন হচ্ছে, তা স্বাভাবিক মনে হচ্ছে না। পরিকল্পিতভাবে কিছু বিনিয়োগকারীদের মধ্যে এ লেনদেন হতে পারে।

তারা বলছেন, শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের সংখ্যা প্রায় চারশো। সেখানে মাত্র ১০ কোম্পানির দখলে রয়েছে লেনদেনের অর্ধেক। এর ফলে সার্বিক বাজার খুব একটা গতি পাচ্ছে না। এমনকি বাজারের ওপর বিনিয়োগকারীদের আস্থাও টালমাটাল অবস্থায় রয়েছে।

তারা আরও বলছেন, সাম্প্রতি সময়ে শেয়ারবাজারে লেনদেনের পরিমাণ বেশ বেড়েছে। কিন্তু সেই লেনদেন বাড়া ওই গুটি কয়েক কোম্পানির মধ্যেই সীমাবন্ধ রয়েছে। ফলে সাম্প্রতি সময়ে শেয়ারবাজারে লেনদেন ও সূচক বাড়লেও বেশিরভাগ বিনিয়োগকারী তার সুফল পাচ্ছেন না।

তথ্য পর্যালোচনায় দেখা যায়, সোমবার ডিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে এক হাজার ৩৬০ কোটি ৭৪ লাখ টাকা। এরমধ্যে ১০ কোম্পানির শেয়ারেই লেনদেন হয়েছে ৬৬৩ কোটি ২৫ লাখ টাকা। অর্থাৎ মোট লেনদেনের ৪৯ শতাংশেই মাত্র ১০ কোম্পানির।

এই ১০ কোম্পানির মধ্যে রয়েছে- বেক্সিমকো, ওরিয়ন ফার্মা, বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশন, জেএমআই হসপিটাল অ্যান্ড রিকুইজিট ম্যানুফ্যাকচারিং, নাহি অ্যালুমিনিয়াম, লাফার্জহোলসিম বাংলাদেশ, শাহিনপুকুর সিরামিকস, ইস্টার্ণ হাউজিং, আইএফআইসি ব্যাংক এবং ওরিয়ন ইনফিউশন।

এরমধ্যে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে বেক্সিমকোর শেয়ার। কোম্পানিটির ১৯৭ কোটি ৬১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছ। দ্বিতীয় স্থানে থাকা ওরিয়ন ফার্মার ১৫৪ কোটি ৩৩ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে। ৫৭ কোটি ২০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে রয়েছে বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশন।

বাকি প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে জেএমআই হসপিটাল অ্যান্ড রিকুইজিট ম্যানুফ্যাকচারিংয়ের ৫২ কোটি ৫৩ লাখ টাকা, নাহি অ্যালুমিনিয়ামের ৪৭ কোটি ৮৫ লাখ টাকা, লাফার্জহোলসিম বাংলাদেশের ৪৬ কোটি ৫৯ লাখ টাকা, শাহিনপুকুর সিরামিকসের ২৯ কোটি ২৫ লাখ টাকা, ইস্টার্ন হাউজিংয়ের ২৮ কোটি ৯০ লাখ টাকা, আইএফআইসি ব্যাংকের ২৬ কোটি ৯১ লাখ টাকা এবং ওরিয়ন ইনফিউশনের ২২ কোটি চার লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে।

এদিকে, লেনদেনের শীর্ষে থাকা ২০ কোম্পানির শেয়ার সম্মেলিতভাবে লেনদেন হয়েছে ৮৩২ কোটি ৬৫ লাখ টাকা, যা ডিএসইর মোট লেনদেনের ৬১ শতাংশের সমান। লেনদেনের শীর্ষ ২০ প্রতিষ্ঠানের তালিকায় স্থান করে নেওয়া আইডিএলসি ফাইন্যান্সের শেয়ার লেনদেন হয়েছে ২১ কোটি ৬২ লাখ টাকা। ফারইস্ট ইসলামী লাইফের শেয়ার লেনদেন হয়েছে ২১ কোটি ৫৭ লাখ টাকা। ব্রিটিশ আমেরিকান টোবাকরে শেয়ার লেনদেন হয়েছে ২১ কোটি এক লাখ টাকা।

বাকি প্রতিষ্ঠানগুলোর শেয়ার এককভাবে ২০ কোটি টাকার কম লেনদেন হয়েছে। এরমধ্যে ডেল্টা লাইফের ১৯ কোটি ৯ লাখ, বেক্সিমকোর ফার্মার ১৮ কোটি পাঁচ লাখ, মালেক স্পিনিংয়ের ১৫ কোটি ১০ লাখ, কহিনুর কেমিক্যালের ১৪ কোটি ৫৪ লাখ, শাহজিবাজার পাওয়ারের ১৩ কোটি চার লাখ, আইপিডিসি ফাইন্যান্সের ১২ কোটি ৬১ লাখ এবং জিনেক্স ইনফোসিসের ১২ কোটি ৩৮ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে।

ডিএসইর একাধিক সদস্য বলেন, শেয়ারবাজারের এখন মূল সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে লেনদেন গুটিকয়েক কোম্পানির মধ্যে সীমাবন্ধ হয়ে গেছে। ফ্লোর প্রাইসের (দাম কমার সর্বোচ্চ সীমা) কারণে অনেক প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম এক জায়গায় আটকে আছে। এসব প্রতিষ্ঠানের খুব একটা লেনদেন হচ্ছে না। আবার যেসব প্রতিষ্ঠানের শেয়ার দাম ফ্লোর প্রাইসের ওপরে আছে, তাদের অনেকগুলোর লেনদেন সীমিত আকারে হচ্ছে।

তারা আরও বলেন, বাজারে এখন অনেক ভালো ভালো কোম্পানি রয়েছে, যে গুলোর শেয়ার দাম বেশ কম। কিন্তু এসব প্রতিষ্ঠানের প্রতি বিনিয়োগকারীরা খুব একটা আগ্রহী হচ্ছেন না। মূলত এখন কোন শেয়ারে ‘পার্টি’ আছে, বিনিয়োগকারীরা সেই দিকে ঝুঁকছেন। এতে কিছু বিনিয়োগকারী মুনাফা করতে পারছেন, কিন্তু সার্বিকভাবে বাজারে ঝুঁকি বাড়ছে।

যোগাযোগ করা হলে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) সাবেক চেয়ারম্যান এ বি মির্জ্জা আজিজুল ইসলাম জাগো নিউজকে বলেন, মোট লেনদেনের অর্ধেক মাত্র ১০ কোম্পানির, এটা খুব একটা ভালো লক্ষণ না। এর অর্থ অন্য শেয়ারগুলোর প্রতি বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ নেই। সুতরাং দেখতে হবে যেসব কোম্পানির শেয়ার লেনদেন কম হচ্ছে, সেখানে ভালো কোম্পানি আছে কি না। ভালো কোম্পানি থাকলে, সেসব কোম্পানিতে বিনিয়োগকারীদের আগ্রহী হওয়া উচিত।

এমএএস/এএএইচ/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।