বিক্রেতা উধাও সাত কোম্পানির

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২:৩৬ পিএম, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২২
ফাইল ছবি

সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবার লেনদেনের শুরুর দিকে শেয়ারবাজারে বেশ অস্থিরতা দেখা যাচ্ছে। তবে দাম বাড়ার তালিকায় নাম লিখিয়েছে বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার। এর মধ্যে দফায় দফায় বেড়ে সাতটি কোম্পানির শেয়ারের দাম দিনের সর্বোচ্চ সীমায় পৌঁছে গেছে।

এমন দাম বাড়ার পরও যাদের কাছে কোম্পানিগুলোর শেয়ার আছে তারা তা বিক্রি করতে চাচ্ছেন না। ফলে ক্রেতা থাকলেও বিক্রেতা উধাও হয়ে গেছে এই কোম্পানিগুলোর।

এদিন লেনদেন শুরুর কয়েক মিনিটের মধ্যে দাম বাড়ার সর্বোচ্চ সীমা স্পর্শ করেছে লুব রেফ বাংলাদেশ। বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) কোম্পানিটির শেয়ার লেনদেন শুরু হয় ৩৫ টাকা ১০ পয়সায়। এরপর কয়েক মিনিটের মধ্যেই কোম্পানিটির শেয়ারের দাম ৩৮ টাকা ৬০ পয়সায় উঠে যায়।

এতে দাম বাড়ায় সর্বোচ্চ সীমায় চলে যায় কোম্পানিটির শেয়ার। এ দামে ১ লাখ ৭৪ হাজারের বেশি শেয়ার কেনার প্রস্তাব থাকলেও বিক্রেতার ঘর খালি রয়েছে। ফলে দিনের সর্বোচ্চ দামে কোম্পানিটির শেয়ার কেনার আগ্রহ দেখিয়েও কিছু বিনিয়োগকারী কিনতে পারছেন না।

দাম বাড়ার সর্বোচ্চ সীমা স্পর্শ করা আরেক কোম্পানি পেনিনসুলা চিটাগাং। এই কোম্পানির শেয়ার লেনদেন শুরু হয় ৩৭ টাকা ২০ পয়সা করে। এরপর দফায় দফায় বেড়ে ৩৯ টাকা ৬০ পয়সায় উঠেছে। যা দিনের দাম বাড়ার সর্বোচ্চ সীমা। দাম বাড়ার সর্বোচ্চ সীমা স্পর্শ করলেও যাদের কাছে কোম্পানিটির শেয়ার আছে তারা বিক্রি করতে চাচ্ছেন না। দিনের সর্বোচ্চ দামে ১ লাখ ৫৮ হাজারের বেশি শেয়ার কেনার আদেশ থাকলেও বিক্রয় আদেশের ঘর শূন্য পড়ে আছে।

এই দুই কোম্পানির সঙ্গে বিক্রেতা উধাও হয়ে যাওয়ার তালিকায় রয়েছে ফারইস্ট ইসলামী লাইফ ইন্সুরেন্স। আগের দিন ৮৪ টাকা ২০ পয়সায় থাকা কোম্পানিটির শেয়ার আজ লেনদেন শুরু হয় ৮৫ টাকায়। এখান কয়েক দফায় দাম বেড়ে দিনের সর্বোচ্চ সীমা ৯২ টাকা ৬০ পয়সায় উঠে এসেছে। এই দামে ৫ লাখ ৬১ হাজারের ওপরে শেয়ার কেনার প্রস্তাব থাকলেও বিক্রেতার ঘর খালি রয়েছে।

এছাড়া বিক্রেতার ঘর শূন্য হয়ে পড়া কোম্পানির তালিকায় রয়েছে- ইনডেক্স অ্যাগ্রো, ফাইন ফুড, বিডি ওয়েল্ডিং এবং মুন্নু অ্যাগ্রো অ্যান্ড জেনারেল মেশিনারিজ।

এরমধ্যে দিনের সর্বোচ্চ দামে ইনডেক্স অ্যাগ্রো ১ লাখ ৫৮ হাজার, ফাইন ফুডের ১ লাখ ২৪ হাজার, বিডি ওয়েল্ডিংয়ের ৭৪ হাজার এবং মুন্নু অ্যাগ্রো অ্যান্ড জেনারেল মেশিনারিজের ১৭ হাজারের বেশি শেয়ার ক্রয়ের আদেশ রয়েছে। বিপরীতে এই কোম্পানিগুলোর বিক্রয় আদেশের ঘর শূন্য পড়ে আছে।

এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ১৩৮টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ৬৮টির এবং ১৫৯টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

এতে ডিএসই’র প্রধান মূল্যসূচক ডিএসই-এক্স বেড়েছে ১৯ পয়েন্ট। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক বেড়েছে ২ পয়েন্ট। তবে ডিএসই-৩০ সূচক ৩ পয়েন্ট কমেছে। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ১৪ কোটি ৩০ লাখ টাকা।

এমএএস/জেএস/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।