মাস্টারকার্ড এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড বিজয়ীদের নাম ঘোষণা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:৩৪ এএম, ২৫ নভেম্বর ২০২২

‘মাস্টারকার্ড এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড-২০২২’ বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করেছে মাস্টারকার্ড।

বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) এক আয়োজনে প্রতিষ্ঠানটি বাংলাদেশে শীর্ষ পার্টনার ব্যাংক, আর্থিক প্রতিষ্ঠান, ফিনটেক এবং মার্চেন্টদের বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে স্বীকৃতি দিয়েছে। ২০১৯ সালে এই অ্যাওয়ার্ড যাত্রা শুরু করে।

রাজধানীতে অনুষ্ঠিত অ্যাওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, গেস্ট অব অনার ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক মো. খুরশীদ আলম। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বিকাশ ভার্মা, চিফ অপারেটিং অফিসার, সাউথ এশিয়া, মাস্টারকার্ড; মাস্টারকার্ড বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার সৈয়দ মোহাম্মদ কামালসহ পার্টনার ব্যাংক, ফিনটেক ও মার্চেন্ট পার্টনারগুলোর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও আমন্ত্রিত অতিথিরা।

এবার সেরা পারফরমারদের ১৫টি ক্যাটাগরিতে এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড প্রদান করেছে মাস্টারকার্ড।

আরও পড়ুন: নতুন উদ্যোক্তাদের জন্য চমক আনছে মাস্টারকার্ড

অনুষ্ঠানে মাস্টারকার্ড সাউথ এশিয়ার চিফ অপারেটিং অফিসার বিকাশ ভার্মা বলেন, সহজ ও নিরাপদ ফিনান্সিয়াল ইকোসিস্টেম তৈরির মাধ্যমে বাংলাদেশে তথ্যপ্রযুক্তি সমৃদ্ধ আর্থিক সেবা খাতের বিস্তৃতির এই প্রচেষ্টায় পাশে থাকতে পেরে মাস্টারকার্ড গর্বিত। যেহেতু বাংলাদেশ জ্ঞানভিত্তিক সমাজে পরিণত হওয়ার লক্ষ্য অর্জনে এগিয়ে যাচ্ছে, মাস্টারকার্ড পার্টনারদের সঙ্গে নিয়ে ও প্রযুক্তির সক্ষমতা কাজে লাগিয়ে গ্রাহকদের আরও বেশি পেমেন্ট ও কমার্স অপশন প্রদান করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। প্রবৃদ্ধিতে অবদান রাখছে এমন সব প্রয়োজনীয় ও অভিনব ডিজিটাল পেমেন্ট সল্যুশন উদ্ভাবনের স্বীকৃতি হিসেবে আজ স্থানীয় প্রতিষ্ঠান সমূহকে পুরস্কৃত করতে পেরে মাস্টারকার্ড আনন্দিত।

মাস্টারকার্ড ১৯৯১ সালে বাংলাদেশে যাত্রা শুরু করে এবং ১৯৯৭ সালে প্রথম ব্র্যান্ডেড প্লাস্টিক কার্ড চালু করে। ২০১৩ সালে প্রথম গ্লোবাল পেমেন্ট টেকনোলজি প্রতিষ্ঠান হিসেবে বাংলাদেশে নিজেদের অফিসের কার্যক্রম শুরু করে মাস্টারকার্ড।

আইএইচআর/এমএইচআর/এমএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।