এইচএসসির একই পরীক্ষা ফের পিছিয়েছে


প্রকাশিত: ০২:০৬ পিএম, ২৪ মে ২০১৬

ঘুর্ণিঝড় রোয়ানুর পর এইচএসসির যে পরীক্ষাটি পিছিয়ে ২৭ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল ফের পিছিয়েছে সে পরীক্ষাটি। এবার ইউপি নির্বাচনের জন্য তা পেছানো হয়েছে বলে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব-কমিটি সূত্রে জানা গেছে। মঙ্গলবার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক তথ্য বিবরণীতে ‘অনিবার্য কারণে’ পরীক্ষাটি পেছানোর কথা জানানো হয়।

মন্ত্রণালয়ের তথ্য বিবরণীতে বলা হয়- মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডসমূহের আওতাধীন আগামী ২৭ মে অনুষ্ঠিতব্য এইচএসসি/ডিআইবিএস পরীক্ষা ‘অনিবার্য কারণে’ ঐদিনের পরিবর্তে ১২ জুন রোববার (সকাল ১০টা হতে দুপুর ১টা ও দুপুর ২টা হতে বিকাল ৫টা) অনুষ্ঠিত হবে।

যদিও আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব-কমিটির সূত্রে জানা গেছে, ২৮ মে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের পঞ্চম পর্বের ভোট থাকায় নির্বাচন কমিশনের অনুরোধে এই পরীক্ষাগুলো আরো পেছানো হয়েছে।

এখন ১২ জুন সকালের পালায় অর্থনীতি ও বাণিজ্যিক ভূগোল দ্বিতীয়পত্র, লঘু সংগীত (তত্ত্বীয়) দ্বিতীয় পত্র, নাট্যকলা (তত্ত্বীয়) দ্বিতীয় পত্র, অর্থনীতি ও বাণিজ্যিক ভূগোল দ্বিতীয় পত্র (ডিআইবিএস) বিষয়ের পরীক্ষা হবে।

রসায়ন (তত্ত্বীয়) দ্বিতীয় পত্র, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি দ্বিতীয় পত্র (মানবিক শাখা), ইসলামের ইতিহাস দ্বিতীয় পত্র (ঐচ্ছিক-১), ইসলামের ইতিহাস দ্বিতীয় পত্র (ঐচ্ছিক-২), ইতিহাস দ্বিতীয় পত্র, ইতিহাস দ্বিতীয় পত্র (ঐচ্ছিক-১), ইতিহাস দ্বিতীয় পত্র (ঐচ্ছিক-২), গৃহ-ব্যবস্থাপনা ও শিশুবর্ধন এবং পারিবারিক সম্পর্ক (তত্ত্বীয়) দ্বিতীয় পত্র পরীক্ষা হবে বিকেলে।

এই পরীক্ষাগুলো গত ২২ মে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ঘূর্ণিঝড় রোয়ানুতে উপকূলীয় এলাকা ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় তা ২৭ জুন পিছিয়ে দেয়া হয়েছিল। এখন ১২ জুন নতুন তারিখ হল।

এর আগে জামায়াতের ডাকা হরতালের ফলে গত ৮ মের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা পিছিয়ে দেয় সরকার।

এইচএস/এসএইচএস/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :