‘মোস্ট ভ্যালুয়েবল পারসন’ এম সাইফুল ইসলাম

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক শেকৃবি
প্রকাশিত: ০৫:৪৩ পিএম, ২১ অক্টোবর ২০১৭
‘মোস্ট ভ্যালুয়েবল পারসন’ এম সাইফুল ইসলাম

আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন তরুণ বিজ্ঞানী শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (শেকৃবি) এর মেডিসিন অ্যান্ড পাবলিক হেলথ বিভাগের চেয়ারম্যান ও সহযোগী অধ্যাপক ড. কে, বি, এম, সাইফুল ইসলাম মোস্ট ভ্যালুয়েবল পারসন অব দ্য ফর লাইভস্টক ডেভেলপমেন্ট পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন। বাংলাদেশে প্রাণিচিকিৎসা শিক্ষায় অনবদ্য অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ বাংলাদেশ লাইভস্টক সোসাইটি তাকে এই পুরস্কার দেয়।

শনিবার সকালে রাজশাহী মেডিকেল কলেজের ডা. কাইছার রহমান চৌধুরী অডিটোরিয়ামে ৩য় লাইভস্টক অ্যাওয়ার্ড ও সেমিনার এবং লাইভস্টক ও পোল্ট্রি মেলার প্রধান অতিথি মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ এ পুরস্কার প্রদান করেন।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডা. মো. আইনুল হক, বাংলাদেশ প্রাণিসম্পদ গবেষণা ইন্সটিটিউটের মহাপরিচালক ড. তালুকদার নুরুন্নাহার, বাংলাদেশ ভেটেরিনারি কাউন্সিলের রেজিস্ট্রার ডা. মো. এমরান হোসেন খান, বাংলাদেশ ভেটেরিনারি অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ড. মো. বেলাল হোসেন, এসিআই, এগ্রিবিজনেস এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও ড. এফ, এইচ, আনছারী, রেনাটা লিমিটেডের এনিমেল হেলথ ডিভিসনের প্রধান মো. সিরাজুল হকসহ বাংলাদেশ লাইভস্টক সোসাইটির সভাপতি প্রফেসর ড. মো. জালাল উদ্দিন সরদার এবং সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক ড. মো. হেমায়েতুল ইসলাম আরিফ।

প্রাণী চিকিৎসা, শিক্ষা ও গবেষণার পাশাপাশি এ তরুণ বিজ্ঞানী দেশের প্রাণিচিকিৎসা ও সংশ্লিষ্ট পেশার উন্নয়নের একজন নিবেদিতপ্রাণ কর্মী। নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন প্রাণিচিকিৎসা পেশার উন্নয়নে। আন্তরিক চেষ্ঠা ও অক্লান্ত পরিশ্রমে যুক্তরাজ্যের রিলিফ ইন্টারন্যাশনাল-বাংলাদেশ শাখার সাথে যৌথ প্রয়াসে শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে স্থাপিত দেশের প্রথম ও একমাত্র জুনোটিক ডিজিজেস রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশন সেন্টার এর পরিচালকের দায়িত্ব পালন করে চলেছেন প্রতিষ্ঠার শুরু থেকেই।

পাশাপাশি ফ্রান্সের আর্ন্তজাতিক খ্যাতি সম্পন্ন কোম্পানি সেভা সান্তে এনিম্যালি ও বিশ্বের প্রাচীনতম ভেটেরিনারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ফ্রান্সের ন্যাশনাল ভেটেরিনারি স্কুল অফ এলফোর্ট (এনভা) এর সহযোগিতায় শেকৃবি’র মেডিসিন অ্যান্ড পাবলিক হেলথ বিভাগের অধীনে বাংলাদেশের প্রাণিচিকিৎসকদের জন্য বাস্তবায়নাধীন এভিয়ান ডিজিসেস ভেটেরিনারি পোস্ট গ্র্যাজুয়েট ট্রেনিং প্রোগ্রাম এর বাংলাদেশের প্রোগাম ইন চার্জ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

ড. কে, বি, এম, সাইফুল ইসলাম এর জন্ম মাদারিপুর সদর উপজেলার তরমুগুরিয়া গ্রামে। মাদারিপুর পৌরসভার হামিদ আকন্দ সড়কস্থ ‘ফুলকুটির’ নিবাসী জনাব আলাউদ্দিন আহমেদ ও সৈয়দা সামসুন্নাহার এর একমাত্র পুত্র আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন এই তরুণ বিজ্ঞানী তাঁর চিকিৎসক স্ত্রী ডা. সৈয়দা সিরাজ-উম-মাহমুদা ও একমাত্র কন্যা সন্তান সামাইরা ওয়াইযাল কে নিয়ে ব্যক্তিগত জীবনের অধিকারী।

উল্লেখ্য যে, প্রানি চিকিৎসা, শিক্ষা ও গবেষণায় বিশেষ অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ ড. কে, বি, এম, সাইফুল ইসলাম এ পর্যন্ত এগার বার বিভিন্ন আর্ন্তজাতিক পূরস্কার, স্বীকৃতি ও বৃত্তি অর্জন করার বিরল গৌরব অর্জন করেছেন।

তিনি জাপান সরকারের মনবুকাগাকুশো বৃত্তি নিয়ে হোক্কাইডো বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বায়োসিস্টেম সাস্টেইনাবিলিটি (মাইক্রোবায়োলজি) তে ২০০৮ সালে এমএস এবং ২০১১ সালে পি এইচ ডি ডিগ্রি অর্জন করেন। এর আগে তিনি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২০০১ সালে ১ম শ্রেনীতে ১ম স্থান অধিকার করে ডক্টর অব ভেটেরিনারি মেডিসিন (ডিভিএম) ডিগ্রি অর্জন করেন এবং মেধা পুরস্কার (স্বর্ণপদক) এ ভূষিত হন। পরবর্তীতে ২০০৫ সালে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডিস্টিংশনসহ ১ম শ্রেণীতে এমএস ইন মেডিসিন ডিগ্রি অর্জন করেন। এছাড়াও তিনি ২০০৬ সালে ডেনমার্কের দ্য রয়্যাল ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যাগ্রিকালচার বিশ্ববিদ্যালয়ের এবং ২০১৬ সালে ন্যাশনাল ভেটেরিনারি স্কুল অফ প্যারিস, ফ্রান্স এর পোস্ট গ্রাজুয়েট ডিপ্লোমা কৃতিত্বের সঙ্গে সম্পন্ন করেন।

আরকেএইচ/একে/আরআইপি