অনুমোদন পেল ‘ইউনিভার্সিটি অব ব্রাহ্মণবাড়িয়া’

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:২৯ পিএম, ০৭ মার্চ ২০১৯
প্রতিকী ছবি

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় আইন, ২০১০ অনুযায়ী ‘ইউনিভার্সিটি অব ব্রাহ্মণবাড়িয়া’ নামে একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার অনুমোদন প্রদান করেছেন। গত ৪ মার্চ তিনি এটি অনুমোদন দেয়ায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় উচ্চ শিক্ষার নব-দ্বার উন্মোচন হলো।

জানা গেছে, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের চেয়ারম্যান র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপির একান্ত প্রচেষ্টায় ‘ইউনিভার্সিটি অব ব্রাহ্মণবাড়িয়া’ অনুমোদন পেয়েছে।

এ বিষয়ে মোকতাদির চৌধুরী বলেন, স্বাধীনতার মাসে এটা ব্রাহ্মণবাড়িয়াবাসীর জন্য সবচেয়ে বড় উপহার। এতে উপকৃত হবে ব্রাহ্মণবাড়িয়াসহ আশেপাশের জেলার শিক্ষার্থীরা এবং তৃণমূলে পৌঁছে যাবে উচ্চ শিক্ষার সুযোগ। এসময় তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ব্রাহ্মণবাড়িয়াবাসীর পক্ষ থেকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান।

এদিকে ‘ইউনিভার্সিটি অব ব্রাহ্মণবাড়িয়া’ অনুমোদনের খবরে জেলায় আনন্দের বন্যা বইছে। জেলার বিশিষ্ট ব্যাক্তিবর্গ এজন্য প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন। ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রথম একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় অনুমোদন পাওয়ায় শিক্ষার্থীদের মাঝে উচ্ছ্বাস বিরাজ করছে। পাশাপাশি অভিভাবকরাও আনন্দিত।

উল্লেখ্য, বিশ্ববিদ্যালয়ের চেয়ারম্যান মোকতাদির চৌধুরী ও তার সহধর্মিণী মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতরের সাবেক মহাপরিচালক প্রফেসর ফাহিমা খাতুন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নয়নের লক্ষ্যে প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছেন। এরই ধারাবাহিকতায় তারা উচ্চ শিক্ষা প্রসারে আধুনিক ও মানসম্পন্ন একটি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার জন্য গত কয়েক বছর ধরে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিলেন। ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরে অস্থায়ী ক্যাম্পাস নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়টির কার্যক্রম শুরু হবে। পরবর্তীতে সদর উপজেলার সুবিধাজনক জায়গায় স্থায়ী ক্যাম্পাস নির্মাণ করা হবে।

এইচএস/এমবিআর/এমকেএইচ

আপনার মতামত লিখুন :