শিক্ষার মান বাড়ানোর তাগিদ শিক্ষামন্ত্রীর

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:২১ পিএম, ২৩ মে ২০১৯

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষার মান বাড়ানোর তাগিদ দিয়ে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, ‘মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষার ক্ষেত্রে প্রশংসনীয় অগ্রগতি হলেও মানের দিক থেকে আমরা অনেক পিছিয়ে আছি। সে ক্ষেত্রে গুরু দায়িত্ব পালন করতে হবে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাদের। কারণ তারা সরাসরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম তদারকি করেন।’

সেকেন্ডারি এডুকেশন ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রামের (এসইডিপি) আওতায় মাধ্যমিক পর্যায়ে শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি ও টিউশন সুবিধা প্রদানের জন্য যোগ্য সুবিধাভোগী শিক্ষার্থী নির্বাচন ও উপবৃত্তির অর্থ প্রেরণসহ এসইডিপির অন্যান্য কার্যক্রম অবহিতকরণ সম্পর্কিত এক কর্মশালায় এ কথা বলেন তিনি। বৃহস্পতিবার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে এ কর্মশালা হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, ‘যে শিক্ষা মানুষকে নৈতিক, মানবিক ও দেশ প্রেমিক হিসেবে গড়ে তুলতে পারে না সে শিক্ষা ব্যর্থ। আমাদের শিক্ষার উদ্দেশ্যই হলো দেশ প্রেমিক, নৈতিক, মানবিক ও দক্ষ জনগোষ্ঠী গড়ে তোলা। গত দশ বছরে শিক্ষাক্ষেত্রে অনেক প্রশংসনীয় অগ্রগতি হয়েছে। বিশেষ করে ঝরে পড়ার হার কমেছে, এনরোলমেন্ট বেড়েছে, নকল বন্ধ হয়েছে। এখন প্রয়োজন শিক্ষার মান বৃদ্ধি করা।’

তিনি বলেন, ‘গুণগত মান নিশ্চত করার জন্য উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাদের অগ্রণী ভূমিকা রাখতে হবে।’ সেই সঙ্গে স্ব স্ব ক্ষেত্রে দৃঢ়তার সঙ্গে দায়িত্ব পালনের জন্য কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেন শিক্ষামন্ত্রী।

সভাপতির বক্তব্যে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব সোহরাব হোসাইন বলেন, ‘আমাদের মানসিক অবস্থার পরিবর্তন হওয়া জরুরি। আমরা যারা সরকারি চাকরি করি আমরা মনে করি কাজ না করলে ও আমরা বেতন পাব। এ মানসিকতা দূর করতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘আগামী দিনে যারা এ দেশটিকে নেতৃত্ব দেবে তাদের গড়ার দায়িত্ব আমাদের। এখানে ফাঁকি দেয়ার কোনো সুযোগ নেই। এখানে ফাঁকি দিলে পুরো জাতির অনেক ক্ষতি হয়ে যাবে। আমরা ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কাছে ছোট হয়ে যাব।’

কর্মশালায় আরও উপস্থিত ছিলেন এসইডিপির প্রোগ্রাম কো-অর্ডিনেটর অতিরিক্ত সচিব জাবেদ আহমেদ, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব ড. মো. মাহমুদুল হক, মাদরাসা শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক মো. শফিউদ্দীন আহমেদ, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক সাইয়েদ ড. মো. গোলাম ফারুক, মাদরাসা ও কারিগরি বিভাগের সচিব মো. আলমগীর প্রমুখ।

এমএইচএম/এনডিএস/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]