আইডিয়াল স্কুলের বনশ্রী শাখায় দুদকের অভিযান

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:৩৪ এএম, ২৬ নভেম্বর ২০১৯

রাজধানীর আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের বনশ্রী শাখায় দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) অভিযান চালিয়েছে। শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ‘বিশেষ ক্লাসের’ নামে বাধ্যতামূলক অর্থ আদায়ের অভিযোগে সোমবার (২৫ নভেম্বর) এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

দুদক বলেছে, অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পাওয়া গেছে এবং এর জন্য কিছু তথ্য-উপাত্ত জব্দ করেছে দুদক। দুদকের সহকারী পরিচালক আতাউর রহমান সরকার এবং উপ-পরিচালক আফনান জান্নাত কেয়ারের সমন্বয়ে গঠিত টিম এ অভিযান পরিচালনা করেন।

এদিকে, প্রতিষ্ঠানটির গভর্নিং কমিটি গতকাল তাদের একজন সহকারী প্রধান শিক্ষককে বহিষ্কার করেছে। দায়িত্বে অবহেলা ও অসতর্কতার জন্য স্কুল শাখার সহকারী প্রধান শিক্ষক মোফাজ্জল হোসেনকে বহিষ্কার করেন গভর্নিং কমিটিন সভাপতি ও রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোর সচিব আবু হেনা মোর্শেদ জামান।

দুদক সূত্রে জানা গেছে, আগামী ফেব্রুয়ারিতে অনুষ্ঠিতব্য এসএসসি পরীক্ষার জন্য টেস্ট পরীক্ষা নিয়েছে স্কুল কর্তৃপক্ষ। ওই পরীক্ষায় যেসব শিক্ষার্থী অকৃতকার্য হয়েছে, তাদের বিশেষ কোচিং এবং পরীক্ষায় সুযোগ দেয়ার জন্য বাধ্যতামূলকভাবে ৪০ হাজার এবং কারও কাছ থেকে ৬০ হাজার টাকা করে পে-অর্ডারের মাধ্যমে আদায় করা হচ্ছিল। এ নিয়ে কোনো অভিভাবক দুদকে অভিযোগ করলে তারই ভিত্তিতে এ অভিযান চালানো হয়।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ ড. শাহান আরা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, মতিঝিল শাখায় নয়, দুদকের একটি টিম বনশ্রীতে গিয়েছিল।

শিক্ষক বহিষ্কার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, অসতর্ককতা ও অসাবধানতার জন্য মোফাজ্জল সাহেবকে সভাপতি বহিষ্কার করেছেন। তিনি আরও বলেন, আমার স্যার অত্যন্ত সব বিষয়ে সতর্ক, কড়া মানুষ। তাই তিনি সহকারী প্রধান শিক্ষককে বহিষ্কার করেছেন।

এমএইচএম/এসআর/এমকেএইচ