করোনায় ইঞ্জিনিয়ারিং পরীক্ষায় তিন পরিবর্তন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:১৭ পিএম, ১৬ জানুয়ারি ২০২১

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে শিক্ষার্থীদের কথা বিবেচনা করে ডিপ্লোমা ইন ইঞ্জিনিয়ারিং পরীক্ষায় প্রশ্নপত্রের ৫০ শতাংশ উত্তর বাধ্যতামূলকসহ তিন পরিবর্তন আনা হয়েছে। আগামী ৪ ফেব্রুয়ারি থেকে এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

শনিবার (১৬ জানুয়ারি) কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. আবদুল রহমান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, প্রস্তুতি বিবেচনায় রেখে ডিপ্লোমা ইন ইঞ্জিনিয়ারিং পরীক্ষা-২০২০ পরিচালনার লক্ষ্যে সরকারি ও বেসরকারি ডিপ্লোমা পর্যায়ের ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ ও পরিচালকবৃন্দের উপস্থিতিতে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এতে পরীক্ষার বিষয়ে তিনটি সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এগুলো হলো -২০১০ ও ২০১৬ প্রবিধানের আওতায় পরীক্ষার্থীদের প্রশ্নপত্রে মুদ্রিত মোট নম্বরের ৫০ শতাংশ নম্বরের উত্তর দিতে হবে (সব বিভাগের যেকোনো প্রশ্ন থেকে)। ২০১০ ও ২০১৬ প্রবিধানের সব বিষয়ের ৩ ঘণ্টার পরীক্ষা ২ ঘণ্টা এবং ২ ঘণ্টার পরীক্ষা এক ঘণ্টা ৩০ মিনিটে অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিটি বিষয়ে পরীক্ষার্থীর প্রাপ্ত নম্বরকে প্রশ্নপত্রে উল্লিখিত মোট নম্বরের বিপরীতে রূপান্তরিত করে ফলাফল নির্ধারণ করা হবে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আমিনুল ইসলাম খান সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। কারিগরি শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক মো. সানোয়ার হোসেন বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

সভায় বক্তব্য দেন- কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ড. মো. মোরাদ হোসেন মোল্লার সভাপতিত্বে সভায় বোর্ডের সচিব ড. মো. জাহেদুল হাসান, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. আবদুর রহমান, অধ্যক্ষ মো. জাকির হোসেন, অধ্যক্ষ মো. রুহুল আমিন, অধ্যক্ষ মো. রিহান উদ্দিন, চিফ ইন্সট্রাক্টর আরিফা আক্তার প্রমুখ।

এমএইচএম/এসজে/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]