ভারতে উচ্চশিক্ষা নিয়ে রাজধানীতে মেলা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:১০ পিএম, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১

‘স্টাডি ইন ইন্ডিয়া’ কর্মসূচির আওতায় রাজধানীতে শুরু হচ্ছে ‘এডুকেশন মিট- ২০২১’। ভারতের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজে উচ্চশিক্ষার সুযোগ সম্পর্কে জানাতে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হচ্ছে।

ভারতীয় দূতাবাসের সহযোগিতায় এডুকেশন এক্সিলেন্স নামের একটি প্রতিষ্ঠানের আয়োজনে আগামী শুক্র ও শনিবার (২৬ ও ২৭ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর গুলশানের ওয়েস্টিন হোটেলে সকাল ১০টা থেকে ৬টা পর্যন্ত এ এডুকেশন মেলা চলবে।

বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন, ভারত সরকারের স্টাডি ইন ইন্ডিয়া কর্মসূচির হেড অব ডিপার্টমেন্ট সন্দীপ গোয়েল এবং এডসিলের নির্বাহী পরিচালক ড. উত্তম বি সাপাতি। সভা পরিচালনা করেন এডুকেশন এক্সিলেন্সের প্রধান নির্বাহী সামিরা ফারহাত আমিন।

স্টাডি ইন ইন্ডিয়া প্রকল্পের প্রধান সন্দীপ গোয়েল বলেন, এটি (এডুকেশন মিট) বাংলাদেশের
শিক্ষার্থীদেরকে দেশের বাইরে ভারতের উচ্চশিক্ষার সুযোগের পরিধি সম্পর্কে জানাবে। আমরা বিদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য যে সুবিধা দেই, প্রতিবেশী বাংলাদেশের শিক্ষার্থীদের জন্য সেটি একটু বিশেষ হবে।

এডসিল ইন্ডিয়ার নির্বাহী পরিচালক ড. উত্তম বি সাপাতে বলেন, এখানে বিদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য দুই হাজারের বেশি শিক্ষাবৃত্তি রয়েছে। বাংলাদেশের মেধাবী শিক্ষার্থীরা অবশ্যই সে বৃত্তি পাবে। যোগ্য শিক্ষার্থীদেরকে স্টাডি ইন ইন্ডিয়ার পক্ষ থেকে অবশ্যই সহযোগিতা করা হবে।

ভারত সরকারের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে ২০১৮ সাল থেকে শুরু হওয়া স্টাডি ইন ইন্ডিয়া কর্মসূচিটি বিশ্বব্যাপী শিক্ষার্থীদেরকে ভারতে উচ্চশিক্ষা গ্রহণে শিক্ষাবৃত্তির মাধ্যমে উৎসাহ দিয়ে আসছে।

সর্বশেষ পরিসংখ্যান অনুযায়ী, প্রায় ৪৫ হাজার কলেজ এবং ৯৫০ টি বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম উচ্চশিক্ষা পদ্ধতির দেশ ভারত।

এখন পর্যন্ত দক্ষিণ এশিয়া, আফ্রিকা, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া, কেন্দ্রীয় এশিয়া এবং মধ্যপ্রাচ্যের প্রায় ১৫০ দেশের শিক্ষার্থীরা স্টাডি ইন ইন্ডিয়া কর্মসূচির আওতায় উচ্চশিক্ষা নিয়েছে।

আয়োজকদের ভাষ্য অনুযায়ী, উচ্চশিক্ষায় আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত সনদ অর্জনে ভারতের
সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে যোগাযোগে এই এডুকেশন মিট সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।
আয়োজকরা জানান, প্রকৌশল, ব্যবসায় প্রশাসন, উদীয়মান প্রযুক্তি, আইন এবং মানবিক
অন্যান্য বিষয়ে ২৬০০টিরও বেশি কোর্সে শিক্ষাবৃত্তিসহ ডিপ্লোমা, স্নাতক, স্নাতকোত্তর এবং
পিএইচডি ডিগ্রি অর্জনের সুযোগ রয়েছে ভারতে।

ভারতে আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থীদের জন্য এক লাখ আসন রয়েছে যার মধ্যে মেধাবীরা দুই হাজারের বেশি শিক্ষাবৃত্তি এবং ৬০ হাজারের সুবিধা নিতে পারবেন টিউশন ফিতে। এখানে রয়েছে ২৫ থেকে ১০০ শতাংশ পর্যন্ত টিউশন ফি ছাড়ের সুযোগ।

ভারতীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানরা একজন বিদেশি ছাত্রের জন্য সর্বোচ্চ ৩৫০০ ইউএস ডলার সমপরিমাণ বার্ষিক শিক্ষাবৃত্তি দিয়ে থাকে যার মধ্যে টিউশন ফি, হোস্টেল এবং মেস ফি অন্তর্ভুক্ত।

শুক্রবার প্রধান অতিথি হিসেবে এই আন্তর্জাতিক শিক্ষা মেলার উদ্বোধন করবেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় রাষ্ট্রদূত শ্রী বিক্রম কুমার দোরাইস্বামী। এডুকেশন মিট প্রাঙ্গণ সবার জন্য খোলা থাকবে সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত। বিস্তারিত জানা যাবে স্টাডি ইন ইন্ডিয়ার ওয়েবসাইটে

এমএইচএম/এসএস/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]