শিক্ষক নিয়োগে শূন্য পদ নিয়ে অন্ধকারে প্রার্থীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:১৭ পিএম, ০৬ এপ্রিল ২০২১
ফাইল ছবি

সারাদেশে বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ৫৪ হাজারের বেশি শিক্ষক পদে নিয়োগের গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)। গত ৪ এপ্রিল থেকে এর আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। তবে প্রকাশিত গণবিজ্ঞপ্তিতে শূন্য পদ নিয়ে প্রার্থীরা নানা ধরনের অভিযোগ তুলছেন।

প্রার্থীদের অভিযোগ, কলেজ পর্যায়ে পর্যাপ্ত শূন্য পদ না থাকায় বিপাকে পড়েছেন তারা। কোনো কোনো বিষয়ে একটি বা দুইটি শূন্য পদ আছে। আর যেসব পদ খালি আছে তাও নারী কোটার।

প্রার্থীরা আরও অভিযোগ করেন, রিটকারীদের জন্য পদ সংরক্ষণ করার ফলেও অনেক পদ খালি থাকলেও সাধারণ প্রার্থীরা আবেদন করতে পারছেন না।

তৃতীয় গণবিজ্ঞপ্তি প্রত্যাশী শিক্ষক ফোরামের সভাপতি শান্ত আহমেদ জানান, যদি কলেজ পর্যায়ে ১৫তম উত্তীর্ণদের সমপরিমাণ শূন্য পদ না থাকে তাহলে কিসের ভিত্তিতে এদের টেকানো হলো এটা জানতে চাই। পর্যাপ্ত শূন্য পদ না থাকলে টেকানোর দরকার কী ছিল, ফেল করিয়ে দিত! শিক্ষক হওয়ার স্বপ্ন দেখিয়ে এভাবে ১৪ মাস অপেক্ষা করিয়ে তাদের সময় নষ্ট করার অধিকার তো কারো নেই।

তিনি বলেন, ১৫তম ছাড়াও অন্যান্য ব্যাচের অনেকেই ৮০-৮২ মার্কস পেয়েও আবেদনের জন্য শূন্য পদ পাচ্ছেন না। অথচ সংরক্ষিত পদে ৪০-৫০ নম্বরে সরাসরি নিয়োগ দেয়ার পরিকল্পনা করা হয়েছে, যা অযৌক্তিক ও বৈষম্যমূলক সিদ্ধান্ত।

এর সুষ্ঠু সমাধানের জন্য চেয়ারম্যানসহ সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি দাবি জানান তিনি। অন্যথায় শূন্য পদ বঞ্চিত প্রার্থীরা আবার রিটের দিকে ধাবিত হবে, যা কারো জন্য কল্যাণকর নয় বলে মন্তব্য করেন তিনি।

এমএইচএম/এআরএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]