প্রকৌশলে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার আবেদন শেষ হচ্ছে আজ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:৩৪ পিএম, ০৮ মে ২০২১

২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক প্রথমবর্ষে দেশের তিনটি প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের গুচ্ছ পদ্ধতির ভর্তি পরীক্ষার আবেদন শেষ হচ্ছে আজ শনিবার (৮ মে)। এর আগে গত ২৪ এপ্রিল থেকে আবেদন শুরু হয়। একযোগে এ গুচ্ছের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১২ জুন।

আগামী ২ জুন ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য যোগ্য প্রার্থীদের তালিকা প্রকাশ করা হবে। পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য আবেদনের যোগ্যতা ও অন্যান্য শর্তাবলি উপরোক্ত ওয়েবসাইট থেকে জানা যাবে। এছাড়া ভর্তিচ্ছুরা লিঙ্কের মাধ্যমে প্রকৌশল গুচ্ছ সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানতে পারবেন।

এ গুচ্ছে ভর্তি পরীক্ষায় রয়েছে- চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট), খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (কুয়েট) এবং রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট)।

আবেদন ফি
তিন বিশ্ববিদ্যালয়ে সব মিলিয়ে মোট তিন হাজার ২০১ জন শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে। আবেদনকারীদের ‘ক’ গ্রুপে ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগসমূহ এবং নগর উন্নয়ন ও পরিকল্পনা বিভাগে ৯০০ টাকা ফি দিয়ে প্রাথমিক আবেদন করতে হবে। আর ‘খ’ গ্রুপে ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগসমূহ, নগর উন্নয়ন ও পরিকল্পনা এবং স্থাপত্য বিভাগে এক হাজার টাকা ফি দিয়ে আবেদন করতে হবে।

আসন সংখ্যা
এবার চুয়েটে সংরক্ষিত ১১টি আসনসহ মোট ৯০১টি, কুয়েটে সংরক্ষিত পাঁচটি আসনসহ এক হাজার ৬৫টি এবং রুয়েটে সংরক্ষিত পাঁচটিসহ এক হাজার ২৩৫টি আসন রয়েছে। মেধা তালিকায় চুয়েটে ৮৯০টি, কুয়েটে ১ হাজার ৬০টি এবং রুয়েটে ১ হাজার ২৩৫টি আসন রয়েছে।

পরীক্ষার বিষয় ও মানবণ্টন
এবারের ভর্তি পরীক্ষায় সাধারণ প্রকৌশল বিভাগসহ এবং নগর ও পরিকল্পনা বিভাগ অর্থাৎ গ্রুপ ‘ক’তে এমসিকিউ পদ্ধতিতে ৫০০ নম্বর। আর প্রকৌশলের পাশাপাশি স্থাপত্য বিভাগ নিয়ে গ্রুপ ‘খ’তে ৭০০ নম্বরের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

‘ক’ গ্রুপে গণিত (উচ্চতর) ১৫টি প্রশ্ন ১৫০ নম্বর, পদার্থবিজ্ঞান বিষয়ে ১৫টিতে ১৫০ এবং রসায়ন বিষয়ে ১৫টিতে ১৫০ এবং ইংরেজি বিষয়ে ৫টি প্রশ্নের জন্য ৫০ নাম্বার নিয়ে মোট ৫০০ নম্বরের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এদিকে গ্রুপ ‘খ’তে উপরিউক্ত প্রশ্নের সঙ্গে মুক্তহস্তে অঙ্কন ২০০ নম্বর নিয়ে মোট ৭০০ নম্বরের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

পরীক্ষায় আবেদনের ভিত্তিতে সারাদেশ থেকে সেরা ৩০ হাজার আবেদন গ্রহণ করা হবে। আবেদনের যোগ্যতা হিসেবে ২০১৭ অথবা ২০১৮ সালে মাধ্যমিক কিংবা সমমানে সর্বনিম্ন জিপিএ ৪.০০ এবং উচ্চ মাধ্যমিকে উচ্চতর গণিত, পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন ও ইংরেজিতে আলাদা আলাদাভাবে জিপিএ ৫.০০ নিয়ে মোট গ্রেড ২০.০০ থাকতে হবে।

এমএইচএম/এআরএ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]