৫৪ হাজার শিক্ষক নিয়োগের ফল প্রকাশে প্রস্তুতি শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:১৩ পিএম, ১৪ জুন ২০২১
ফাইল ছবি

বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ৫৪ হাজার শিক্ষক নিয়োগের ফলাফল প্রকাশের প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ) দ্রুত নিয়োগ পরীক্ষার এ ফল প্রকাশ করবে বলে জানা গেছে।

সম্প্রতি আদালত থেকে আড়াই হাজার নিবন্ধিত প্রার্থীকে মেধা তালিকা অনুযায়ী নিয়োগ দেয়ার নির্দেশনা দেয়া হয়। তা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে প্রস্তুতি নিচ্ছে এনটিআরসিএ। তবে ঠিক কবে নাগাদ ফল প্রকাশ করা হতে পারে, তা স্পষ্ট করে জানাতে পারেননি এনটিআরসিএ-এর কর্মকর্তারা।

জানা গেছে, গত ৩০ মার্চ ৫৪ হাজার নিবন্ধনধারীকে নিয়োগ দিতে এনটিআরসিএ’-এর জারি করা তৃতীয় গণবিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী নিয়োগ কার্যক্রমের ওপর স্থগিতাদেশ দেন। একইসঙ্গে পরীক্ষায় উত্তীর্ণ সনদধারীদের নিয়োগের সুপারিশের রায় বাস্তবায়ন না করায় এনটিআরসিএ চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগে করা আবেদন নিষ্পত্তি করে দেন আদালত। বিষয়টি শুনানির জন্য ৪ সপ্তাহ পর হাইকোর্টের কার্যতালিকায় আসবে বলে জানা গেছে।

আদালতের নির্দেশনায় দেখা গেছে, রিটকারীদের নিয়োগ দিতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। মেধা তালিকা অনুযায়ী তাদের যোগদানের সুযোগ দিতে বলা হয়েছে। এ নির্দেশনা বাস্তবায়নে কাজ শুরু করেছে এনটিআরসিএ।

এনটিআরসিএ-এর কর্মকর্তারা জানান, আদালত থেকে আড়াইহাজার নিবন্ধিত প্রার্থীকে নিয়োগ জন্য সুপারিশ করা হয়। সেখানে মেধাক্রম অনুযায়ী যোগদানের সুযোগ দিতে বলা হয়েছে। এ জন্য আগে রিটকারীদের নিয়োগ দিয়ে পরে তৃতীয় ধাপের আবেদনের ফলাফল প্রকাশে সিদ্ধান্ত নিয়েছে এনটিআরসিএ।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের একজন অতিরিক্ত সচিব জাগো নিউজকে বলেন, ‘আদালত থেকে ভিন্ন ভিন্ন নির্দেশনা দেয়ায় শিক্ষক নিয়োগ কার্যক্রম স্থগিত রাখা হয়েছে। বর্তমানে সিনিয়র আইনজীবির সঙ্গে আলোচনা করা হচ্ছে। তাদের পরামর্শ নিয়ে দ্রুত সময়ের মধ্যে এ নিয়োগ কার্যক্রম শুরু করতে এনটিআরসিএকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।’

জানতে চাইলে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন বলেন, ‘আদালতের রায় সিনিয়র আইনজীবির মাধ্যমে আমরা নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছি। আদালতের নির্দেশনা দ্রুত সময়ের মধ্যে কীভাবে বাস্তবায়ন করে তৃতীয় ধাপের নিয়োগ কার্যক্রম শুরু করা যায়, সেই চেষ্টা করা হচ্ছে।’

এমএইচএম/এএএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]