প্রাথমিকের প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত শিক্ষকদের মান যাচাইয়ের নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১০:৪১ এএম, ১২ জুলাই ২০২১

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত শিক্ষকদের মান যাচাইয়ের নির্দেশ দিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর। ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে প্রশিক্ষণ নেয়া শিক্ষকদের অ্যাসাইনমেন্টের মাধ্যমে মান যাচাই করা হবে বলে এক অফিস আদেশে জানিয়েছে অধিদফতর।

রোববার (১২ জুলাই) এ সংক্রান্ত একটি অফিস আদেশ প্রকাশিত হয়েছে।

এর আগে প্রশিক্ষণ নেয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের মান যাচাইয়ে অনলাইনে বিশেষ সেশন পরিচালনার নির্দেশ দিয়েছিল ডিপ্লোমা ইন প্রাথমিক এডুকেশন (ডিপিএড) বোর্ড। ৭ জুলাই প্রকাশিত ওই আদেশে দেশের প্রাইমারি ট্রেনিং ইনস্টিটিউটের (পিটিআই) সুপারিনটেনডেন্টদের শিক্ষকদের মান যাচাইয়ে নির্দেশনা দেয়া হয়েছিল।

ওই নির্দেশনার পর অ্যাসাইনমেন্টের মাধ্যমে শিক্ষকদের মান যাচাইয়ের নির্দেশ দিল প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরও।

অধিদফতরের আদেশে বলা হয়, কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে ডিপিএড ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের প্রশিক্ষণ মুখোমুখি ও অনলাইনে মিশ্র পদ্ধতিতে হয়েছে। অনলাইনে চূড়ান্ত মৌখিক পরীক্ষার মাধ্যমে কোর্স সম্পন্ন হয়েছে। বিভিন্ন পিটিআইর প্রশিক্ষণার্থীদের চূড়ান্ত মৌখিক পরীক্ষা পর্যবেক্ষণকালে প্রশিক্ষণের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয় শিক্ষক-মান সম্পর্কে সুস্পষ্ট ধারণা থাকা আবশ্যক।

ডিপিএড প্রশিক্ষণার্থীদের প্রথম, দ্বিতীয়, তৃতীয় ও চতুর্থ টার্মের মাধ্যমে শিক্ষক-মান অর্জন করার জন্য সুস্পষ্ট নির্দেশনা রয়েছে বলেও আদেশে উল্লেখ করা হয়।

ডিপিএড প্রশিক্ষণার্থীরা শিক্ষক-মান সম্পর্কে কতটুকু অর্জন করতে পেরেছেন, তা যাচাইয়ের মাধ্যমে ‘শিক্ষক-মান’ তথ্য ও অনুশীলন (উদাহরণসহ) বিষয়ে প্রত্যেক প্রশিক্ষণার্থীকে হাতে লেখা একটি পূর্ণদৈর্ঘ্য অ্যাসাইনমেন্টের মাধ্যমে মূল্যায়ন করা হবে।

অ্যাসাইনমেন্টের মাধ্যমে মূল্যায়ন রেকর্ড সংরক্ষণ এবং আগামী ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে একটি প্রতিবেদন পাঠাতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে পিটিআই সুপারিনটেনডেন্টদের। বিষয়টি নিশ্চিত করতে জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা একাডেমিকে (নেপ) অনুরোধ জানিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর।

এসএস/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]