যেভাবে হবে এসএসসি-এইচএসসির সংক্ষিপ্ত পরীক্ষা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:০২ পিএম, ১৫ জুলাই ২০২১

করোনা পরিস্থিতি কিছুটা নিয়ন্ত্রণে এলে এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে সংক্ষিপ্ত আকারে পরীক্ষার আয়োজন করা হবে। এতে সময়, পূর্ণমান ও প্রশ্ন-উত্তর কমিয়ে আনা হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) ভার্চুয়ালি এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, করোনা পরিস্থিতির কারণে এসএসসি-এইচএসি পরীক্ষার্থীদের জন্য সংক্ষিপ্ত সিলেবাস তৈরি করা হলেও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় তা ক্লাসে বসিয়ে পড়ানো সম্ভব হয়নি। অনেক অভিভাবক পরীক্ষা ছাড়াই পাস করিয়ে দিতে বলেছেন। আবার অনেকে পরীক্ষা নিয়ে ফল দিতে বলেছেন। শিক্ষার্থীদের শিখন জ্ঞান অর্জন করতে আমরা এসএসসি পরীক্ষার্থীদের জেএসসি পরীক্ষার ওপর ভিত্তি করে আবশ্যিক বিষয়গুলোতে সাবজেক্ট (বিষয়) ম্যাপিং করে নম্বর দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আর ঐচ্ছিক বিষয়ের ওপর আপাতত সংক্ষিপ্ত সিলেবাসের ২৪টি অ্যাসাইনমেন্ট করানো হবে। সেসব মূল্যায়ন করে স্কুল থেকে তার নম্বর শিক্ষা বোর্ডে পাঠাতে হবে। করোনা পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হলে সংক্ষিপ্ত আকারে পরীক্ষা নেয়া হবে। আর যদি কোনোভাবে পরীক্ষা নেয়া সম্ভব না হয়, তাহলে তাদের অ্যাসাইনমেন্ট ও জেএসসি পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের ওপর মূল্যায়ন করে ফলাফল দেয়া হবে।

তিনি আরও বলেন, এইচএসসির ক্ষেত্রে সংক্ষিপ্ত সিলেবাসের ওপর ৩০টি অ্যাসাইনমেন্ট করানো হবে। তাদেরও আবশ্যিক বিষয়গুলো জেএসসি ও এসএসসি পরীক্ষার ওপর সাবজেক্ট ম্যাপিং করে নম্বর দেয়া হবে। ঐচ্ছিক বিষয়ের ওপর পরীক্ষা নেয়া হবে। যদি পরীক্ষা নেয়া সম্ভব না হয় তবে গতবারের মতো আগের দুই পরীক্ষার ওপর ভিত্তি করে সাবজেক্ট ম্যাপিংয়ের মাধ্যমে মূল্যায়ন করে ফল প্রকাশ করা হবে।

দীপু মনি বলেন, করোনা পরিস্থিতি কিছুটা নিয়ন্ত্রণে এলে এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের ঐচ্ছিক বিষয়ের ওপর পরীক্ষার আয়োজন করা হবে। এ পরীক্ষা তিন ঘণ্টা সময় কমিয়ে দেড় ঘণ্টা করা হবে। প্রতিটি বিষয়ে মোট ৫০ নম্বরের পরীক্ষা নেয়া হবে। প্রশ্নপত্রে আগের মতো ১০টি প্রশ্ন দেয়া হবে, তবে সেখান থেকে ৩-৪টি প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে।

এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে আগের মতো আবশ্যিক বিষয়গুলো জেএসসি ও এসএসসি পরীক্ষার ওপর মূল্যায়ন করে নম্বর দেয়া হবে বলে জানান শিক্ষামন্ত্রী।
তিনি বলেন, তবে ঐচ্ছিক বিষয়ে পরীক্ষা দিতে হবে। এসএসসির মতো একই নিয়মে তাদের এসব পরীক্ষা নেয়া হবে।

অপরদিকে এসএসসির পরীক্ষাও যদি নেয়া সম্ভব না হয়, তবে জেএসসি পরীক্ষার ফলাফল ও অ্যাসাইনমেন্টের ওপর নম্বর যুক্ত করে ফল দেয়া হবে।

এর আগে শিক্ষামন্ত্রী জানান, করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে আগামী নভেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহে এসএসসি ও ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহে এইচএসসি পরীক্ষা নেয়া হবে।

এমএইচএম/জেডএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]