হাত ধুয়ে-মাস্ক পরে ক্লাসে ঢুকছে ল্যাবরেটরির শিক্ষার্থীরা

ক্যাম্পাস প্রতিবেদক
ক্যাম্পাস প্রতিবেদক ক্যাম্পাস প্রতিবেদক ঢাকা কলেজ
প্রকাশিত: ১২:৫৮ পিএম, ১২ সেপ্টেম্বর ২০২১

খুলে দেওয়া হয়েছে প্রাথমিক থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ৷ স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষার্থীদের সশরীরে শ্রেণিকক্ষে পাঠদানের ব্যবস্থা করেছে প্রতিষ্ঠানগুলো ৷ শিক্ষার্থীদের সশরীরে ক্লাস নিতে ক্যাম্পাসে প্রবেশের আগেই হাতধোয়া, মাস্কপরাসহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার বিষয়গুলো তদারকি করছে গভর্নমেন্ট ল্যাবরেটরি হাই স্কুলের শিক্ষকরা ৷

রোববার (১২ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১টায় স্কুলে গিয়ে দেখা যায়, শিক্ষার্থীরা স্কুলে প্রবেশের সময় মাস্কপরা, হাতধোয়াসহ সামাজিক দূরত্ব মেনে শ্রেণিকক্ষে প্রবেশ করার বিষয়টি সরাসরি শিক্ষকরাই তদারকি করছেন। এছাড়া শ্রেণিকক্ষে প্রতি বেঞ্চে একজন করে বসানো হয়েছে। ক্লাস শুরুর আগে করোনা সচেতনতা নিয়ে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য দিচ্ছেন শিক্ষকরা।

jagonews24

স্কুলের ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী মোহাম্মদ সাখাওয়াত বলেন, অনেক দিন পর স্কুলে এসে ভালো লাগছে ৷ স্যারদের সঙ্গে, বন্ধুদের সঙ্গে দেখা হয়েছে ৷ আমরা অনেক আনন্দিত। আর যেন স্কুল বন্ধ না হয়। আমরা ক্লাস করতে চাই।

স্কুলের পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থী হুমায়রা আজমান বলেন, আমার অনেক মজা হচ্ছে ৷ অনেকদিন পর বন্ধুদের সঙ্গে গল্প করতে পারবো। খেলা করতে পারবো। আমি অনেক খুশি।

jagonews24

গভর্নমেন্ট ল্যাবরেটরি স্কুলের সিনিয়র শিক্ষক আবু নোমান বলেন, সকাল থেকেই শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যবিধি মানাতে আমরা শিক্ষকরা কাজ করে যাচ্ছি। দুটি গেটে আলাদা করে শিক্ষক প্রতিনিধিরা কাজ করছেন এবং শিক্ষার্থীদের হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও হাতধোয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করছেন।

স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. আবু সাঈদ ভুঁইয়া বলেন, পূর্ববর্তী সিদ্ধান্ত অনুযায়ী শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতে আমরা কাজ করছি। শিক্ষার্থীদের শরীরের তাপমাত্রা পরীক্ষা করার পর, হাত ধুয়ে সামাজিক দূরত্ব মেনেই শ্রেণিকক্ষে পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে। প্রথম দিনে প্রায় ৯৪ শতাংশ শিক্ষার্থী ক্লাসে উপস্থিত হয়েছে। এছাড়াও শিক্ষার্থীরা ক্লাসের মধ্যে যেন সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলে সেটি নিশ্চিতে শিক্ষকরাও তদারকি করছেন।

নাহিদ হাসান/বিএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]