গুচ্ছ পরীক্ষার ফল বাতিল নয়, সুযোগ থাকছে রিভিউয়ের

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:৩৫ পিএম, ২৭ অক্টোবর ২০২১

গুচ্ছভুক্ত ২০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘বি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ হয়েছে। তবে এতে নানা ধরনের অভিযোগ তুলছেন শিক্ষার্থীরা।

অপরদিকে গুচ্ছ ভর্তি কমিটির সদস্যরা বলছেন, শতভাগ ত্রুটিমুক্ত ও নির্ভুলভাবে ফল প্রকাশ করা হয়েছে। প্রয়োজনে ফলাফল পুনরায় রিভিউ করার সুযোগ থাকবে। এই ফল প্রকাশ করা হয়।

ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা বলেন, আমরা পরীক্ষায় প্রত্যাশিত ফল পাইনি। পরীক্ষা শেষে পাঠ্যবই, প্রাইভেট শিক্ষক, বিভিন্ন কোচিং সেন্টারের মাধ্যমে প্রশ্ন সমাধান করে দেখা গেছে, যে নম্বর পাওয়ার কথা ছিল তার চেয়ে অনেক কম পেয়েছি। অভিযোগ বিবেচনায় নিয়ে ফল পুননিরীক্ষার দাবি তোলেন তারা।

শিক্ষার্থীদের এসব দাবি ভিত্তিহীন বলে মন্তব্য করেন গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা আয়োজক কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক এবং শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ।

তিনি বুধবার (২৭ অক্টোবর) জাগো নিউজকে বলেন, শতভাগ নির্ভুল ত্রুটিমুক্তভাবে কম্পিউটারের মাধ্যমেই ফল তৈরি হয়েছে। এক্ষেত্রে ভুলের সুযোগ নেই। তবে শিক্ষার্থীদের দাবি আমরা আমলে নিচ্ছি। তাদের ফল পুননিরীক্ষার আবেদনের সুযোগ দেওয়া হবে।

ফরিদ উদ্দিন আহমেদ বলেন, তৃতীয় ধাপের পরীক্ষার ফল শেষে শিক্ষার্থীদের পুননিরীক্ষার জন্য সুযোগ দেওয়া হবে। এসময় তারা আবেদন করলে পুনরায় রিভিউ করে নতুনভাবে ফল প্রকাশ করা হবে। আবেদন শেষ হওয়ার পরবর্তী ১৫ দিনের মধ্যে এ ফল প্রকাশ করা হবে। দ্রুত সময়ের মধ্যে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে বিষয়টি জানানো হবে।

ফল প্রকাশ করার পর তা সরিয়ে নেওয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, আমরা যে ওয়েবসাইটে ফল প্রকাশ করেছি তা নিরাপদ ছিলো না। ফলে কেউ ফল ওলটপালট করে আরেকটা ওয়েবসাইটে প্রকাশ করে। এটা জানার পর ওয়েবসাইটটি নিরাপদ করে আজকে আবার ফল প্রকাশ করা হয়।

অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ বলেন, সিস্টেম অনুযায়ী ওএমএর শিট ভালোভাবে পূরণ না করলে সেটি কম্পিউটার রিড করতে পারে না। আবার অনেকে একাধিক বৃত্ত ভরাট করেন। কম্পিউটার সেটা বাতিল করে দেয়। এ জাতীয় ভুল করে থাকলে আমাদের কিছু করার থাকে না, তারপর আনুমানিক ৫০০টি খাতায় রোল নম্বর ঘষামাজা করা থাকলেও সেগুলো সংশোধন করে ফল দেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

এর আগে মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) বিকেলে ‘বি’ ইউনিটের ফল প্রকাশ করা হয়। প্রকাশিত ফলাফলে নানা অসঙ্গতির অভিযোগ তোলেন ভর্তিচ্ছুরা। ফল প্রকাশের কিছু সময় পর তা স্থগিত করে গুচ্ছ কমিটি। কয়েক ঘণ্টা পর সংশোধিত ফল দেওয়া হলেও সেখানেও নানা অসঙ্গতি রয়েছে বলে অভিযোগ প্রার্থীদের।

এ বিষয়ে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা আয়োজক কমিটির সদস্য সচিব ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী ওহিদুজ্জামান বলেন, যারা অভিযোগ করছেন আমরা তাদের পুন:নিরীক্ষার আবেদনের সুযোগ দেব। তবে সব ইউনিটের পরীক্ষা নেওয়া ও ফল প্রকাশের পর এ সুযোগ দেওয়া হবে।

এমএইচএম/জেডএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]