ওআইসির ‘ডিশটিংগুইশড স্কলার’ মনোনীত হলেন ড. হাফিজুর রহমান

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:২৩ এএম, ২৪ মে ২০২২

প্রাইম এশিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. মো. হাফিজুর রহমান অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কোঅপারেশন (ওআইসি) এর ‘ডিশটিংগুইশড স্কলার’ নির্বাচিত হয়েছেন। ওআইসির চারটি স্ট্যান্ডিং কমিটির মধ্যে অন্যতম ‘স্ট্যান্ডিং কমিটি ফর সায়েন্স অ্যান্ড টেকনিক্যাল কো-অপারেশন’ (কমসটেক) কমিটির পক্ষ থেকে এই সম্মাননা দেয়া হয়েছে।

‘ডিশটিংগুইশড স্কলার’ নির্বাচিত হওয়ার সুবাদে কমসটেকের অর্থায়নে ওআইসিভুক্ত ৫৭টি দেশে ভ্রমণের সুযোগ পাবেন ড. মো. হাফিজুর রহমান। পাশাপাশি এসব দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ানো, কর্মশালা ও প্রশিক্ষণ কর্মসূচি পরিচালনা এবং বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষা পদ্ধতি নিয়ে পর্যালোচনার সুযোগ পাবেন তিনি। সেইসাথে দেশের নির্ধারিত সংখ্যক শিক্ষার্থীকে এসব দেশে পাঠানোর সুযোগ পাবেন।

অধ্যাপক ড. মো. হাফিজুর রহমান বর্তমানে প্রাইম এশিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োকেমিস্ট্রি বিভাগে শিক্ষকতা এবং পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকের দায়িত্ব পালন করছেন। সেইসঙ্গে জাপানের গিফু ইউনিভার্সিটির ভিজিটিং প্রফেসর হিসেবে কর্মরত। এর আগে তিনি পাকিস্তানের করাচি বিশ্ববিদ্যালয়ের ড. পাঞ্জাবি সেন্টার ফর মলিকুলার মেডিসিন অ্যান্ড ড্রাগ রিসার্সের সহযোগী অধ্যাপক ছিলেন।

লালমনিরহাটে জন্মগ্রহণ করা অধ্যাপক ড. মো. হাফিজুর রহমান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বায়োকেমিস্ট্রিতে স্নাতকোত্তর পাস করেন ১৯৯৫ সালে। পরে জাপানের কুমামোটো ইউনিভার্সিটি থেকে মলিকুলার জেনেটিক্স বিষয়ে পিএইচডি ডিগ্রি লাভ করেন। তিনি ১৭ বছর থেকে শিক্ষকতা করছেন এবং বায়োকেমিস্ট্রি, মলিকুলার বায়োলজি, বায়োটেকনোলজি ও ড্রাগ নিয়ে ২৪ বছর ধরে গবেষণা করছেন।

ডায়াবেটিস প্রতিকার ও প্রতিরোধে প্রাইমএশিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের উদ্ভাবিত এইচআরএম চা’র গবেষণার নেতৃত্বও রয়েছেন অধ্যাপক ড. মো. হাফিজুর রহমান।

আইএইচআর/জেএইচ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]