অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে কারিগরি শিক্ষা: উপমন্ত্রী

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৪১ পিএম, ৩০ জুন ২০২২
শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী/ ফাইল ছবি

কারিগরি শিক্ষা দেশের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে বলে মন্তব্য করেছেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী।

বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) রাজধানীর শ্যামলী আইডিয়াল পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের নবীনবরণ অনুষ্ঠানে তিনি এ মন্তব্য করেন।

উপমন্ত্রী বলেন, পুঁথিগত শিক্ষার সঙ্গে প্রায়োগিক শিক্ষা বা লাইফ স্কিল থাকা প্রত্যেকের জন্য আবশ্যক। এ জন্যই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কারিগরি শিক্ষাকে সাধারণ শিক্ষার মধ্যে ছড়িয়ে দিতে বলেছেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান মো. আলী আকবর খান বলেন, কারিগরি শিক্ষা গ্রহণের পর একজন শিক্ষার্থীকে চাকরির জন্য অপেক্ষা করতে হয় না। বেকারত্ব যে কোনো দেশের জন্য অভিশাপ। কর্মমুখী শিক্ষা বেকারত্বের নিদারুণ অভিশাপ থেকে দেশকে মুক্ত করে।

সভাপতির বক্তব্যে অধ্যক্ষ এম এ সাত্তার বলেন, প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই আমরা শিক্ষার্থীদের কর্মমুখী শিক্ষার ওপর জোর দিয়েছি। দেশ বিনির্মাণে ৪৪ বছর ধরে অমসৃণ পথ পাড়ি দিয়ে আমাদের আজকের এই পথচলা।

তিনি আরও বলেন, যারা কর্মমুখী শিক্ষা গ্রহণ করে তাদের কেউই বেকার থাকে না। আমাদের দেশে বর্তমানে প্রাথমিক, মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক এবং উচ্চশিক্ষা প্রচলিত। তার সঙ্গে কারিগরি, প্রকৌশলী, ডাক্তারি, ভোকেশনাল ইত্যাদি কর্মমুখী শিক্ষার ব্যবস্থাও রয়েছে। তবে কর্মমুখী শিক্ষার ব্যাপক প্রসার ঘটাতে হবে।

দেশের প্রচলিত কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রি নিয়েও লাখ লাখ যুবক বেকারত্বের অভিশাপে হতাশাগ্রস্ত বলে উল্লেখ করেন এই অধ্যক্ষ।

তিনি বলেন, উন্নত দেশের শিক্ষিত জনগোষ্ঠীর বেশির ভাগই কারিগরি, বৃত্তিমূলক ও পেশাভিত্তিক শিক্ষায় শিক্ষিত। এমনকি এশিয়ায় দক্ষিণ কোরিয়া, মালয়েশিয়া, হংকং, সিঙ্গাপুর, থাইল্যান্ড, ইন্দোনেশিয়া, শ্রীলঙ্কা ইত্যাদি দ্রুত উন্নয়নশীল দেশে কর্মমুখী শিক্ষা যথেষ্ট গুরুত্ব পেয়েছে। গ্লোবালাইজেশনের এই যুগে কারিগরি শিক্ষা গ্রহণ করে দেশকে এগিয়ে নিতে হবে।

এমএইচএম/জেডএইচ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]