বইমেলায় বিনামূল্যে বিশুদ্ধ পানি

প্রকাশিত: ১০:২৫ পিএম, ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৭
বইমেলায় বিনামূল্যে বিশুদ্ধ পানি

রাজধানীর মোহাম্মদপুরের বাসিন্দা শাহাদাত হোসেন শুক্রবার সকালে স্ত্রী তাহমিনা ও তাদের নয় বছরের ছোট্ট শিশু কন্যা সাদিয়া আফরিনকে নিয়ে বইমেলায় আসেন। বাংলা একাডেমি ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ঘণ্টা দেড়েক হাঁটাহাঁটি করে ক্লান্ত সাদিয়ার ভীষণ তৃষ্ণা লাগে। পানি খাবো পানি খাবো বলে কান্না জুড়ে দিল।

এ দৃশ্য দেখে এগিয়ে এলেন পুলিশের এক কনস্টেবল। সাদিয়ার বাবা মাকে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে বললেন, ওখানে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) নিয়ন্ত্রণ কক্ষের পাশে বিশুদ্ধ খাবার পানির সুব্যবস্থা রয়েছে। শাহাদাত হোসেন সেখানে দিয়ে মেয়েকে পানি পান করিয়ে শান্ত করলেন।

এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে তিনি পুলিশের এ উদ্যোগের প্রশংসা করে বললেন, অমর একুশের বইমেলায় প্রতিদিন অসংখ্য দর্শনার্থী আসছে। আগের তুলনায় মেলার পরিধি ও দোকানের সংখ্যাও বেড়েছে। শীত শেষে এখন কিছুটা গরম পড়েছে। তাই অনেকেই বাচ্চাদের নিয়ে ঘুরাঘুরি করে ক্লান্ত হয়ে তৃষ্ণার্ত হয়ে পড়ছে। মেলা প্রাঙ্গণে হকার না থাকায় পানি কিনেও খেতে পারছে না। এ ক্ষেত্রে ডিএমপির বিনামূল্যে বিশুদ্ধ পানির সুব্যবস্থা অবশ্যই প্রশংসার দাবি রাখে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

সরেজমিন পরিদর্শনকালে দেখা গেছে, মেলা ঘুরে ক্লান্ত অনেক দর্শনার্থী ডিএমপি নিয়ন্ত্রণ কক্ষের পাশে স্থাপিত মিনারেল পানির মেশিন থেকে পানি নিয়ে খাচ্ছেন। নিয়ন্ত্রণ কক্ষের পাশাপাশি চাইল্ড লস্ট নামে একটি কাউন্টারও দেখা গেল।

কর্তব্যরত পুলিশ কর্মকর্তা জানালেন, মেলায় ঘুরতে এসে অভিভাবকদের হাত থেকে ছুটে অনেক শিশু হারিয়ে যায়। মেলায় কারও নজরে আসলে তাদেরকে এনে এখানে রেখে মাইকে ঘোষণা দিয়ে বাবা মা তথা অভিভাবকদের কাছে ফিরিয়ে দেয়া হয়।

এমইউ/এআরএস